সর্বশেষ
বুধবার ৯ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | ২৩ মে ২০১৮

'নির্বাচন কমিশনের নিরপক্ষেতা আশা করি'

সোমবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৭

1522003235_1508176205.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
জিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) বক্তব্য বিএনপিকে নির্বাচনে আনার কৌশল হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার বিশ্বখাদ্য দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষি মন্ত্রণালয় ও জাতিসংঘের খাদ্য এবং কৃষি সংস্থা (এফএও) যৌথভাবে রাজধানীর খামারবাড়ী কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এ সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারে প্রধান বক্তা ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। এতে সভাপতিত্ব করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোহাস্মদ মইনউদ্দীন আবদুল্লাহ।

উল্লেখ্য, নির্বাচনী আইন সংস্কার বিষয়ে গত রবিবার বিএনপির সঙ্গে সংলাপ করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সেই আলোচনার সূচনায় সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ১৯৯১ সালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হন। বিএনপি রাষ্ট্র পরিচালনার কাজে প্রকৃত নতুন ধারার প্রবর্তন করেছে।’ সোমবার সেমিনারে সাংবাদিকরা এ ব্যপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশনের নিরপক্ষেতা আশা করি। জনগণের প্রত্যাশার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে তারা কাজ করবেন বা কথা বলবেন। তবে সিইসি কী বলেছেন- সেটি নিশ্চিত হতে হবে। আমদেরও নির্বাচন কমিশনে সংলাপ আছে। আমাদের পার্টি সংলাপে বসবে। সে সময় আমরা নিশ্চিত হব আসলেই তিনি এ ধরনের কথা বলেছেন কিনা। এটা নিশ্চিত হওয়ার সুযোগ আছে।

তিনি বলেন, ‘এটা বিএনপিকে নির্বাচনে নিয়ে আসার কৌশল হতে পারে। সংলাপের পর নির্বাচনে আসার ব্যাপারে বিএনপির খুশি খুশি ভাব। বিএনপির মহাসচিবের মুখও দেখলাম খুশি খুশি। এটা যেন নির্বাচন পর্যন্ত থাকে।’
 
কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যা আমাদের উপর একটা বিরাট চাপ সৃষ্টি করেছে। তাদের উপর নির্যাতনের কারণে, মৃত্যুর ধ্বংস লীলা চালানোর কারণে তারা বাংলাদেশে এসেছে। ‘অভিবাসন’ শব্দটা তাদের সাথে যুক্ত করতে চাই না। দুর্যোগ কমলে রোহিঙ্গারা চলে যাবেন।’

ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি ২৮৮ বার পড়া হয়েছে