সর্বশেষ
শুক্রবার ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৬ নভেম্বর ২০১৮

পুজেমনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি হতে যাচ্ছে

শুক্রবার, নভেম্বর ৩, ২০১৭

1632704322_1509703961.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
কাতালান বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ব্যাপারে তদন্তে নেতৃত্ব দেয়া স্পেনিশ বিচারক শুক্রবার সাবেক নেতা কার্লেস পুজেমনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে যাচ্ছেন। কাতালোনিয়ার এ নেতা বর্তমানে বেলজিয়ামে পলাতক রয়েছেন। মাদ্রিদে বিচার বিভাগ সূত্র একথা জানায়। খবর এএফপি’র।

স্বাধীনতা ঘোষণা দেওয়ায় ক্ষমতাচ্যুত কাতালোনিয়া অঞ্চলের সরকারের বরখাস্ত ৮ মন্ত্রিকে স্বাধীনতা ঘোষণার ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকার ব্যাপারে আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালত তাদেরকে রিমান্ডে নেয়ার নির্দেশ দেয়ার পর পুজিমনের বিরুদ্ধে এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার এক শুনানি শেষে স্পেনের একটি আদালতের বিচারক তাদের রিমান্ডে নেওয়ার এ আদেশ দেন বলে খবরে বলা হয়।

বিচার বিভাগ সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার বিচারক কার্মান লমালা পুজেমনের বিরুদ্ধে কোন গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেননি। তবে তিনি শুক্রবার তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করবেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

শুনানিকালে আইনজীবীরা কাতালোনিয়া সরকারের নয় সদস্যের মধ্য ৮ জনকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানান। এদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ, উস্কানি ও সরকারি তহবিল তছরুপের অভিযোগ আনা হয়েছে।

কাতালোনিয়ার নেতা পুজেমন বৃহস্পতিবার আদালতে শুনানিতে হাজির না হওয়ায় স্পেনের প্রধান কৌঁসুলি সর্বোচ্চ আদালতকে তার বিরুদ্ধে ইউরোপীয় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির অনুরোধ জানান। তবে বেলজিয়াম থেকে পুজেমনের আইনজীবী জানান, স্পেনের পরিবেশ এ মুহূর্তে ভালো নয়। তার মক্কেল কিছুটা দূরত্ব বজায় রাখতে চান। কিন্তু তিনি আদালতকে সহযোগিতা করবেন।

সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী শান্তি ভিয়ার জামিন আবেদন গ্রহণ করেছেন আদালত। তিনি কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণার জন্য ভোটাভুটি শুরুর আগে তিনি পদত্যাগ করেন।

গত ১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভোটকে কেন্দ্র করে বিচ্ছিন্নতাবাদ ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে কাতালোনিয়ার নেতা কার্লোস পুজেমন ও আঞ্চলিক পার্লামেন্টের স্পিকারসহ তার সরকারের ২০ সদস্যের বিরুদ্ধে সমন জারি করে আদালত। কাতালোনিয়ার বাতিল হওয়া সরকারের সদস্যদের বিরুদ্ধে স্পেনের কৌঁসুলিদের দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হলে ১৫ থেকে ৩০ বছরের কারাদন্ড হতে পারে।

কাতালোনিয়ার ভেঙ্গে দেওয়া পার্লামেন্টের আট সদস্য বৃহস্পতিবার আদালতে গেলেও পুজেমন ও তার সরকারের অপর চার মšী¿ হাজির হননি। তারা বেলজিয়ামে অবস্থান করছেন। সেখানে পুজেমন বলেন, এটি স্পেন সরকারের একটি রাজনৈতিক মামলা।

ঢাকা, শুক্রবার, নভেম্বর ৩, ২০১৭ (বিডিলাইভ২৪) // ই নি এই লেখাটি ১৮৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন