সর্বশেষ
শনিবার ৬ই শ্রাবণ ১৪২৫ | ২১ জুলাই ২০১৮

ডিএনসিসি নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম নিলেন ঢাবি শিক্ষক জোবায়ের আলম

শনিবার, জানুয়ারী ১৩, ২০১৮

87a49145555-768x512-thumbnail.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট করতে আগ্রহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বাংলাদেশ টুডের সম্পাদক জোবায়ের আলম আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

শনিবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রির প্রথম দিনে জোবায়ের আলম তা সংগ্রহ করেন। সকালে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়।

আন্তর্জাতিক অঙ্গণে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের হয়ে সমন্বয়কের ভূমিকা পালন করে সম্প্রতি আলোচনায় এসেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষক জোবায়ের আলম। বিভিন্ন বৈশ্বিক সম্মেলনগুলোতে যোগদান করে আলোচনা, সমালোচনা ও নানা পরামর্শের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন তিনি; পরিচিত হয়ে ওঠেন আন্তর্জাতিক মহলে। আন্তর্জাতিক অঙ্গণে অসংখ্য উচ্চপদস্থ ব্যক্তিত্বের সাথে তার গড়ে ওঠে সখ্যতা।

একজন স্বপ্নবাজ মানুষ ও প্রতিভাবান ব্যক্তি জোবায়ের আলম। বেশ কিছু পরিচয় রয়েছে তার। তিনি একাধারে একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, একটি ইংরেজি জাতীয় দৈনিক দি বাংলাদেশ টুডে’র (The Bangladesh Today) সম্পাদক ও প্রকাশক এবং নিবেদিত প্রাণ সমাজসেবী এবং শিক্ষার্থীদের প্রিয় শিক্ষক জোবায়ের আলম। তিনি সৎ, নিষ্ঠাবান ও পরিশ্রমী জীবনযাপনে অভ্যস্ত। উদ্যমী মানুষ তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে স্নাতকোত্তরের পাঠ চুকিয়ে তিনি কানাডা ও আমেরিকা থেকে দুইটি মাস্টার্স ডিগ্রী সম্পন্ন করেন এবং হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সামার প্রোগ্রামে অংশ নেন। দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকাকালীন সময়েই মূলত তিনি ঢাকা শহরের সাথে অন্য দেশের শহরগুলোর মধ্যে পার্থক্য লক্ষ্য করেন। তখন থেকেই তার মধ্যে চিন্তা আসতে শুরু করে কিভাবে তিনি তার অবস্থান থেকে তার প্রিয় এই শহরটির জন্য কিছু করতে পারেন।

জোবায়ের আলম সমাধান হিসেবে ঢাকাকে দক্ষিণ এশিয়ার একটি মডেল শহরে রূপান্তরের স্বপ্ন বোনা শুরু করেন। তার মতে ‘ব্যক্তিগত উদ্যোগে কখনোই একটি নগরের আমূল পরিবর্তন ঘটানো সম্ভব নয়’- তাই আসন্ন ২০১৮ সালের মেয়র নির্বাচনে তিনি ঢাকা উত্তরের মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


জোবায়ের আলম কেন মেয়র হওয়ার স্বপ্ন দেখেন?

প্রায় ২ কোটি জনসংখ্যার পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম মেগাসিটি ঢাকা প্রায় বসবাসের অনুপযোগী। অসহনীয় যানজট, অব্যবস্থাপনা এবং মাত্রাতিরিক্ত মানুষের চাপে ঢাকার বর্তমান অবস্থা শোচনীয়। পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা করার সময় পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে তিনি কানাডার ভ্যাঙ্কুভারের প্রশস্ত রাস্তা, বিস্তীর্ন সবুজ পার্কে ঘুরে বেড়িয়েছেন। সেখানকার নগর ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের পরিকল্পনা ও নির্মাণরীতি সূক্ষ্ণভাবে পর্যবেক্ষণ করার জন্য। প্রায় ৩ বছর আমেরিকার সবচেয়ে বড় মেগাসিটি নিউ ইয়র্কে অবস্থানকালেও তিনি লক্ষ্য করেছেন নগর কর্তৃপক্ষের যথাযথ ব্যবস্থাপনা কীভাবে নাগরিক জীবনযাত্রার মানকে সরাসরি প্রভাবিত করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক সাহেব ঢাকার এই অবস্থার উন্নয়নে রোদ বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঢাকাকে আধুনিক শহরে রূপান্তরের জন্য মাঠেময়দানে কাজ করে গেছেন। তার উত্তরসূরী হিসেবে সমাজের সর্বস্তরের অংশীদারদের সাথে নিয়ে তিনিও পরিবর্তনের এই ধারা অব্যাহত রাখতে চান। জনগণের অকুন্ঠ সমর্থন ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশির্বাদপুষ্ট হলে মেয়র হিসেবে ঢাকাকে দক্ষিণ এশিয়ার একটি মডেল সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে চান জোবায়ের আলম।

পারিবারিক ভাবেই জোবায়ের আলম আওয়ামী লীগের সমর্থক। জোবায়ের আলমের বাবা ছিলেন থানা আওয়ামী লীগের সক্রিয় সদস্য। সেই মূল্যবোধ থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকাকালীন অবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হন তিনি। বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামী লীগ সমর্থিত শিক্ষক সংগঠন নীলদলের একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দক্ষ জনবল তৈরির প্রয়াস থেকে প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত ঢাবিতে শিক্ষক হিসেবে প্রায় এক দশক যাবৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

দেশের যেকোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও সংকটাপন্ন মুহূর্তে দি বাংলাদেশ টুডের পক্ষ থেকে তিনি সবসময় অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। ২০১৭ সালের ভয়াবহ বন্যায় ১০০০ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ত্রাণ দিয়ে সাহায্য করেছেন তিনি। রোহিঙ্গাদের সমস্যাকে বিবেচনায় নিয়ে সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে মানবিক সাহায্যের ক্যাম্পেইন চালিয়েছেন যেনো এটি দেশীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে একটি অগ্রগণ্য বিষয়ে পরিণত হয়। মেধাবী ও কৌতূহলী শিশুকিশোরদের বিজ্ঞান চর্চায় আগ্রহী করে তোলার লক্ষে আমরা জাতীয় বিজ্ঞান প্রতিযোগিতারও আয়োজন করেছেন।

ভবিষ্যতেও প্রান্তিক ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের এবং উদ্যোগী তরুণদের ভাগ্য উন্নয়নে সর্বদা কাজ করতে বদ্ধপরিকর জোবায়ের আলম।


ঢাকা, শনিবার, জানুয়ারী ১৩, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ২১৭৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন