সর্বশেষ
শুক্রবার ১০ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ পাকিস্তান

2018-01-19 18:24:13

12.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

প্রথম তিনটি ম্যাচ হেরেই ওয়ানডে সিরিজে হার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল পাকিস্তানের। শেষ দুটি ম্যাচ ছিল কিছুটা সান্ত্বনা খুঁজে পাওয়ার উপলক্ষ। কিন্তু সেটাও শেষ পর্যন্ত পেলেন না পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সবকটিতেই হেরে শেষমেশ হোয়াইটওয়াশের লজ্জাতেই ডুবতে হলো পাকিস্তানকে।

আজ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ম্যাচে কিউইদের কাছে ১৫ রানে হারে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা জয় করা পাকিস্তান। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে ওয়ানডে ফরম্যাটে এই নিয়ে তৃতীয়বার হোয়াইওয়াশ হলো পাকিস্তান। ১৯৮৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল পাকিস্তান।
 
ওয়েলিংটনে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় নিউজিল্যান্ড। ওপেনার মার্টিন গাপটিলের ব্যাটিং দৃৃঢ়তার সাথে কলিন মুনরো, অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, রস টেইলর ও কলিন গ্র্যান্ডহোমের ছোট ছোট ইনিংসের কল্যাণে বড় সংগ্রহের পথ পায় নিউজিল্যান্ড।
 
কিন্তু ৪৪ ওভারের পর ১২ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারিয়ে বড় সংগ্রহের পথ থেকে ছিটকে পড়ে নিউজিল্যান্ড। তারপরও ওয়ানডে ক্যারিয়ারে গাপটিলের ১৩তম ও পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম সেঞ্চুরিতে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৭১ রানের লড়াই করার পুঁজি পায় নিউজিল্যান্ড।
 
গাপটিল ১০টি চার ও ১টি ছক্কায় ১২৬ বলে ১০০ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস খেলেন। এছাড়া টেইলর ৭৩ বলে ৫৯, মুনরো ২৪ বলে ৩৪, গ্র্যান্ডহোম অপরাজিত ২১ বলে ২৯ ও উইলিয়ামসন ৩৬ বলে ২২ রান করেন। পাকিস্তানের রুম্মন রইস ৩টি উইকেট নেন।
 
হোয়াইটওয়াশ এড়াতে জয়ের জন্য ২৭২ রানের লক্ষ্যে এবারও ভালো শুরু করতে পারেনি পাকিস্তান। ডান-হাতি পেসার ম্যাট হেনরির বোলিং তোপে দলীয় ১৪ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। ফলে স্কোর বোর্ডে ৫৭ রানে যোগ হতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে পাকিস্তান। এরমধ্যে ৩টি উইকেটই নেন হেনরি।


ঢাকা, 2018-01-19 18:24:13 (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি 396 বার পড়া হয়েছে