সর্বশেষ
রবিবার ৫ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ব্রিটেনে প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রী নুস ঘানি

শনিবার ২০শে জানুয়ারী ২০১৮

11.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

প্রথমবারের মতো যুক্তরাজ্যের মন্ত্রিসভায় যুক্ত হলেন এক মুসলিম নারী। যুক্তরাজ্যের পরিবহন মন্ত্রণালয়ের জুনিয়র মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন কাশ্মীরি-বংশোদ্ভূত নুস ঘানি।

গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মের মন্ত্রিসভায় পরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন নুস ঘানি। নতুন বছরে তেরেসা মের মন্ত্রিসভার প্রথম রদবদলে ৪৫ বছর বয়সী নুসকে ওই দায়িত্ব দেওয়া হয়। সংসদে ক্ষমতাসীন দলের সহকারী হুইপ হিসেবেও নিয়োগ পেয়েছেন তিনি।

প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রী হিসেবে নুস শুক্রবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে ভাষণ দেন।

হাউস অব কমন্সে প্রথম ভাষণটি দেওয়ার পরপরই টুইট করেন নুস। টুইটে তিনি লেখেন, 'পরিবহনমন্ত্রী হিসেবে আমার ইনিংস শুরু করলাম। ব্রিটেনের প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রী হিসেবে ইতিহাসও গড়ে ফেললাম।'

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে মন্ত্রীরা যেখান থেকে ভাষণ দেন সেই 'ডিসপ্যাচ বক্স'-এ দাঁড়িয়েই পার্লামেন্টে প্রথম ভাষণটি দেন নুস।

২০১০ সালে প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে অংশ নেন নুস। তার ৫ বছর পর, ২০১৫ সালে তিনি ব্রিটিশ পার্লামেন্টে কনজারভেটিভ পার্টির প্রথম মুসলিম নারী এমপি হন।

কাশ্মীর থেকে যুক্তরাজ্যে অভিবাসন নেয়া বাবা-মায়ের সন্তান ঘানির জন্ম বার্মিংহামে। কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী হওয়ার আগে ঘানি যুক্তরাজ্যের বৃদ্ধদের সহায়তা ও স্তন ক্যান্সারের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলার জন্য অর্থ সংগ্রহের কাজ করেছেন। এছাড়া ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ওয়ার্ল্ডেও কাজ করেছেন তিনি।


ঢাকা, শনিবার ২০শে জানুয়ারী ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি 264 বার পড়া হয়েছে