সর্বশেষ
সোমবার ১৩ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

মোটরসাইকেল কিনলে রেজিস্ট্রেশন ফ্রি

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা

সোমবার ২২শে জানুয়ারী ২০১৮

image-9946-1516627525.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় প্রতিবছরই একটি বড় অংশজুড়ে থাকে দেশি-বিদেশি ইলেকট্রনিকস পণ্য। তাই ক্রেতাসাধারণের চাহিদার কথা মাথায় রেখে দেশীয় প্রতিষ্ঠান যমুনা ইলেকট্রনিকস দিচ্ছে শতাধিক পণ্যে বিশেষ ছাড় এবং থাকছে নিশ্চিত পুরস্কারও। ১৫০ সিসি জিউস ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেলের সঙ্গে ঢাকা-পাতায়া বিমান টিকিট। মেলা থেকে যমুনা ইলেকট্রনিকসের মোটরসাইকেল কিনলেই রেজিস্ট্রেশন ফ্রি।

সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ক্রেতা-দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখোর থাকে মেলা প্রাঙ্গণ। মেলার শুরুতে স্টলগুলোয় বিভিন্ন পণ্যে ছাড় ও অফারের ছড়াছড়ি থাকলেও এখন তা আরো বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিভিন্ন পণ্যের স্টল ও প্যাভিলিয়নগুলো পণ্য ছাড়ের প্রতিযোগিতায় নেমেছে। তবে মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়ায় খুশি বিক্রেতারা।

যমুনা ইলেকট্রনিকসে মোটরসাইকেল কিনতে এসেছেন মিলন মাহমুদ। তিনি বলেন, মেলায় আসার আগেই সিদ্ধান্ত ছিল এবার একটি মোটরসাইকেল কিনব। ঢাকা শহরে সময় বাচানোর একমাত্র পথ হচ্ছে মোটরসাইকেল। মোটরসাইকেলে খুব কম সময়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছানো যায়।

দেশি-বিদেশি অন্য ব্র্যান্ড রেখে যমুনা কেন? যমুনার পণ্য আন্তর্জাতিক মানসম্মত। এছাড়া যমুনা দেশীয় পণ্য। তাই কেনার আগ্রহ বেশি। এছাড়া সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে রেজিস্ট্রেশন ফ্রি। এ সুযোগ হাতছাড়া করতে চাই না।

যমুনা ইলেকট্রনিকসের ব্র্যান্ড ম্যানেজার সালাউদ্দিন সিকদার সুমন বলেন, দেশীয় ব্র্যান্ড যমুনা ইলেকট্রনিকস আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে আধুনিক ডিজাইনের পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করে। আমরা সব সময় ক্রেতার চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে থাকি। সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে টেলিভিশন, ফ্রিজ, মোটরসাইকেল, মাইক্রোওভেন ও ব্ল্যান্ডার। এসব পণ্য কিনলেই রয়েছে নিশ্চিত পুরস্কার। মেলায় বিভিন্ন অফারের মধ্যে যমুনার অফারগুলো সেরা।

তিনি বলেন, যমুনায় মোটরসাইকেলে রেজিস্ট্রেশন ফ্রিজ দেয়ার পর থেকে বিশেষ করে তরুণরা ভিড় করছে বেশি। বেচাবিক্রি ভালো হচ্ছে। কারণ মোটরসাইকেল কেনার পর রেজিস্ট্রেশন একটি বড় ঝামেলা

যমুনা ইলেকট্রনিকসে যত ছাড়

মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য বিশেষ ছাড় দিচ্ছে দেশীয় ইলেকট্রনিকস ব্র্যান্ড যমুনা ইলেকট্রনিকস অ্যান্ড অটোমোবাইল লিমিটেড। যমুনার প্যাভিলিয়ন পরিদর্শনেই নগদ ছাড়, ভাউচার কুপন ও গিফট কুপন দেয়া হচ্ছে। শুধু যমুনা ইলেকট্রনিকস পরিদর্শন করলেই দর্শনার্থীদের ডিসকাউন্ট কুপন দেয়া হচ্ছে। মেলা শেষ হলে এ ডিসকাউন্ট কুপন দেখিয়ে যমুনার শোরুম থেকে যেকোনো পণ্য কিনলে পাওয়া যাবে ৫ শতাংশ ছাড়। এছাড়া ফ্রিজ কিনলে উপহার হিসেবে পাওয়া যেতে পারে আরেকটি ফ্রিজ। তবে উপহারের ফ্রিজটি পেতে হলে প্যাভিলিয়নের রক্ষিত কোডে এসএমএস করতে হবে। এছাড়া প্রতিটি ফ্রিজের জন্য থাকছে ২০ বছরের ওয়ারেন্টি। লটারির মাধ্যমে বিজয়ী ক্রেতাকে এসএমএসে পুরস্কারের কথা জানানো হবে।

এসএমএস দেখিয়ে প্যাভিলিয়ন থেকে ফ্রিজের পুরস্কার বুঝে নিতে পারবেন ক্রেতারা। প্রতি ১০ হাজার টাকার কেনাকাটায় দেয়া হচ্ছে ১ হাজার টাকার ক্যাশ ভাউচার। ৩১ মার্চের মধ্যে যমুনা ইলেকট্রনিকসের যে কোনো শোরুম থেকে পণ্য কিনে ভাওচার দেখালে ওই অর্থ ছাড়ের সুযোগ পাবেন ক্রেতারা। এছাড়া ৫৫ ইঞ্চি ৪কে এলইডি টিভিতে ১০ হাজার ও ৪২ ইঞ্চি স্মার্ট টিভিতে থাকছে ৪ হাজার ২০০ টাকা নগদ মূল্য ছাড়। এছাড়া অন্যান্য মডেলের টিভিতে হোম অ্যাপ্লায়েন্স উপহার হিসেবে দেয়া হচ্ছে। এক ও দেড় টন এয়ার কন্ডিশনের সঙ্গে মাইক্রোওয়েব ওভেন উপহার হিসেবে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া যমুনা ফ্যানে থাকছে ১২ শতাংশ ছাড় এবং ১২ বছরের ওয়ারেন্টি।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) আয়োজনে মেলা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। কোনো সাপ্তাহিক ছুটি ছাড়াই মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে। প্রবেশ ফি ধরা হয়েছে জনপ্রতি ৩০ টাকা। ছোটদের জন্য ২০ টাকা। সূত্র:যুগান্তর


ঢাকা, সোমবার ২২শে জানুয়ারী ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি 2226 বার পড়া হয়েছে