সর্বশেষ
রবিবার ৫ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

শিশুদের পদচারণায় মুখরিত বইমেলা

শুক্রবার ২রা ফেব্রুয়ারি ২০১৮

12.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

আজ বইমেলার দ্বিতীয় দিন। ছুটির দিনে শিশু কিশোরদের পদচারণায় জমজমাট ছিল বাংলা একাডেমির বিশেষ আয়োজন শিশুপ্রহর।

নতুন বইয়ের সঙ্গে শিশু কর্নারের আনন্দ আর সিসিমপুরের আয়োজনই ছিল মূল আকর্ষণ। শিশুদের সঙ্গে এ আনন্দে যোগ দিয়েছিলেন অভিভাবক ও লেখকরাও।
 
হালুম, টুকটুকি আর সিকুর সঙ্গে শিশুরা সখ্য রঙিন পর্দা থেকেই। প্রিয় চরিত্রের আবেদন কমে না কখনোই। তাই ছুটির দিনের বিশেষ আয়োজন সিসিমপুরকে ঘিরে শিশুদের এ জমায়েত ইট পাথরের ঢাকাকে কিছুটা সময় পরিণত করেছিল স্বপ্নপুরীতে।

আর তার সাথে চকচকে নতুন বইয়ের রাজ্যে অক্ষর বিন্যাস, দেব দানব ভূত রাক্ষসের সাথে পরিচিত হতে কে না চায়। শিশু কিশোর তরুণদের উপস্থিতিতে তাই জমে উঠেছে বইমেলা। খুদে লেখকদের উপস্থিতিও যোগ করেছে অন্যমাত্রা।

অজানা আর অচেনাকে বইয়ের মাধ্যমেই জানুক আগামী প্রজন্ম এমনটাই চান অভিভাবকেরা। তারা বলেন, এখানে আসলে অনেক কিছুই শেখা ও জানা যায়। মেলায় আসতে পেরে বাচ্চারা বেশ খুশি।

আর লেখকরা বলছেন শিশুদের বই পড়ায় আগ্রহী করে তুলতে ছোটবেলা থেকেই শিশুতোষ বই তুলে দিতে হবে তাদের হাতে।

লেখক ও কথা সাহিত্যিক আনিসুল হক বলেন, বইমেলায় যারা আসেন তাদের সবাই শিশু, কিশোর ও তরুণ। তারা সবাই বই পড়তে চায়। আমরাই তাদের চাহিদা অনুযায়ী বই পড়তে দিতে পারি না।

উল্লেখ্য, অমর একুশে গ্রন্থমেলায় শিশুরা যাতে তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে বই কিনতে পারে সেজন্য ফেব্রুয়ারির প্রতি শুক্রবার ও শনিবার শিশুপ্রহর হিসেবে ঘোষণা করেছে বাংলা একাডেমি। এবারের বই মেলায় সাড়ে চার শতাধিক ও বেশি প্রকাশনা অংশ নিচ্ছে।


ঢাকা, শুক্রবার ২রা ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি 402 বার পড়া হয়েছে