সর্বশেষ
শুক্রবার ১৬ই ফাল্গুন ১৪২৬ | ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্মার্টফোন নেই পুতিনের

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৮

17.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

নিজের কোনো স্মার্টফোর্ট নেই বলে দাবি করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। গতকাল বৃহস্পতিবার তিনি এ দাবি করেন। এর আগে গত বছর পুতিন জানিয়েছিলেন, কোন ধরনের সামাজিক মাধ্যমে যুক্ত হওয়ার কোনো ইচ্ছে তার নেই।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদদের সঙ্গে এক বৈঠকে ভাষণ দেন কুর্চাটভ পারমাণবিক গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধন মিখাইল কভালচুক। তিনি বলেন, এখন সবার পকেটে স্মার্টফোন রয়েছে। কভালচুকের এই বক্তব্যের পর পুতিন ভাষণে জানান তার কোনও স্মার্টফোন নেই।

পুতিন বলেন, 'আপনি বলছেন সবার কাছে স্মার্টফোন রয়েছে। কিন্তু আমার কোনও স্মার্টফোন নেই।' রুশ প্রেসিডেন্টের এই কথা শুনে উপস্থিত সবাই হেসে ওঠেন।

৬৫ বছরের রুশ রাষ্ট্রপ্রধান এর আগে স্বীকার করেছিলেন প্রযুক্তি নিয়ে তার কোনও আগ্রহ নেই। ২০০৫ সালে তিনি জানান, তার কোনও মোবাইল ফোন নেই।

গত বছর স্কুল শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক বৈঠকে পুতিন বলেছিলেন, তিনি খুব ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। অবসর সময়ে ইনস্টাগ্রাম বা অন্য কোনও সামাজিক মাধ্যমে সময় কাটান কিনা জানতে চাইলে তিনি একথা জানান।

পুতিন বলেন, ব্যক্তিগতভাবে তিনি এসব ব্যবহার করেন না। তার হয়ে কর্মকর্তারাই কাজটি করেন। আমার কঠোর পরিশ্রমের দিন শেষ হয় অনেক দেরিতে। ইনস্টাগ্রামে আমি নেই।

পুতিন স্মার্টফোন ব্যবহার না করলেও রুশ প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদকে প্রায়ই একটি আইফোন ও অন্যান্য যোগাযোগ প্রযুক্তি নিয়ে থাকতে দেখা যায়। তার নিজের স্ন্যাপচ্যাট ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে।  

২০১২ সালে ক্রেমলিনে ফেরার পর ইন্টারনেটে মত প্রকাশের স্বাধীনতা কঠোর হস্তে দমন করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট। গত বছর অনলাইনে পোস্ট করার অভিযোগে ৪৩জনকে কারাদণ্ড দিয়েছে রাশিয়া।


ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১১৬১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন