সর্বশেষ
শুক্রবার ১০ই ফাল্গুন ১৪২৪ | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সুন্দরী নারী সোর্সের ফাঁদে পড়া এক ভারতীয় সেনার গল্প

শুক্রবার ৯ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮

vgjhooo-101657.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ভারতীয় বিমান বাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচারের দায়ে এক গ্রুপ ক্যাপ্টেনকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ। পুলিশ জানায়, গ্রেফতার ব্যক্তির নাম অরুণ মারওয়া। দিল্লিতে বিমান বাহিনীর সদর দপ্তরে তিনি কর্মরত ছিলেন। বিমান বাহিনীর প্যারা-জাম্পিং ইনস্ট্রাকটর এবং গরুড় কম্যান্ডোর প্রশিক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন। সামনের বছর তার অবসর নেয়ার কথা রয়েছে।

জানা গেছে ঘটনার পিছনের ঘটনা। গেলো কয়েক মাস আগে দুই সুন্দরী নারীর সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয় অরুণের। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাটের প্রলোভন দেখিয়ে অর্জুনের কাছ থেকে বিমান বাহিনীর অত্যন্ত গোপন তথ্য হাতিয়ে নিতো তারা। ওই দুই নারী তাকে উত্তেজক অশ্লীল ছবি পাঠাতো নিয়মিত। অর্জনুও তাদের রূপে মুগ্ধ হয়ে নিয়মিত চাট করেন। তারা অর্জুনের বিশ্বাস অর্জন করে ভারতীয় বিমান বাহিনীর তথ্য চান। আর অর্জুন তাদের সেসব ছবি তুলে পাঠাতেন। যার মধ্যে ছিল ডিফেন্স সাইবার এজেন্সি, ডিফেন্স স্পেস এজেন্সি ও একটি স্পেশাল অপারেশনস ডিভিশনের তথ্য।

নারী দুই জন আসলে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা- আইএসআই'র সোর্স ছিলেন। তারা ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে ফেসবুকের মধ্যমে অর্জুনকে ফাঁদে ফেলেন। কয়েক দিন আগে ভারতীয় বিমান বাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগের সদর দফতরে কিছু গোপন নথির ছবি তোলার সময় তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন গোয়েন্দারা।

বর্তমানে তিনি পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন বলে জানা গেছে। মারওয়ার বিরুদ্ধে অফিসিয়াল সিক্রেট অ্যাক্ট-এ মামলা দায়ের হয়েছে। এই আইনে তাঁর ১৪ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে বলেও সূত্রের খবর।

সূত্র: আনন্দবাজার


ঢাকা, শুক্রবার ৯ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি 1368 বার পড়া হয়েছে