সর্বশেষ
বুধবার ৫ই পৌষ ১৪২৫ | ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

অক্ষয়ের 'প্যাডম্যান' দেখে মুগ্ধ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

রবিবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০১৮

image-68785.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

অক্ষয় কুমার-রাধিকা আপ্তে-সোনম কাপুর অভিনীত ‘প্যাডম্যান’ দেখে মুগ্ধ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। হু-এর উদ্যোগে পৃথিবী জুড়ে এই ছবি দেখানো হবে।

এত কিছুর পরও মুখভার অক্ষয়ের। কারণ ভারত বেশ কিছু রাজ্যের পুরুষরা তাদের সঙ্গিনীকে এই ছবি দেখতে দিতে যেতে রাজি নন। তাই হতাশ অক্ষয় এই মানসিকতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন।

এর মধ্যেই দেশের বিভিন্ন প্রদেশে ‘প্যাডম্যান’ এর প্রদর্শন নিয়ে আলাদা প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। উত্তরপ্রদেশ, বিহার এবং হরিয়ানায় মহিলাদের ‘প্যাডম্যান‘ দেখার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে উঠেছেন পুরুষেরা। আর এই বিষয়টিই রুষ্ট করেছে অক্ষয়কে।

শনিবার মুম্বাইয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তা জানালেন অক্ষয়। এদিন তিনি বলেন, 'দেশ-বিদেশ মিলিয়ে আমার ছবির ব্যবসা এখনও পর্যন্ত যা হয়েছে, তাতে আমি খুশি। ১৮ কোটি টাকায় এই ছবি তৈরি করেছি। এখনও পর্যন্ত দেশ-বিদেশ মিলিয়ে দুশো কোটির ব্যবসা হয়ে গিয়েছে। তবে সেটা কিন্তু আমাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল না। যে উদ্দেশ্য থেকে ‘টয়লেট, এক প্রেমকথা’ বানানো হয়েছিল,  সেই একই উদ্দেশ্যে ‘প্যাডম্যান’ তৈরি। স্বাস্থ্য, পরিচ্ছন্নতা ও মানসিকতায় পরিবর্তন আনা।'

অক্ষয়ের মতে, ভারতে পঞ্চাশ ভাগেরও বেশি মানুষ সঠিক শৌচালয় ব্যবহার করতেন না।

এ বিষয়ে অক্ষয় বলেন, ‘টয়লেট, এক প্রেমকথা’ রিলিজের পর এসব ব্যাপারে প্রভূত পরিবর্তন ঘটেছে। ‘প্যাডম্যান’ তৈরির মূল উদ্দেশ্য হল, ঋতুস্রাব নিয়ে নারী সমাজের সচেতনতা বাড়ানো। অর্থ উপার্জন এখানে প্রথম শর্ত নয়।

অক্ষয় আরও বলেন, '২০১৮-তেও দেশের শতকরা ৮২ শতাংশ মহিলা স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করেন না। খুব দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। এই অজ্ঞতার মূলে কুঠারাঘাত করে যত তাড়াতাড়ি চেতনার আলোয় আনা যায়, সেটাই ছিল আমার আসল উদ্দেশ্য।'


ঢাকা, রবিবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫৫৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন