সর্বশেষ
সোমবার ৪ঠা আষাঢ় ১৪২৫ | ১৮ জুন ২০১৮

বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না: উপাচার্য

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৮

vvvcc-2018-02-19-21-21-46.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

পৃথিবীর কোথাও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কোনো ধরণের অবমাননা সহ্য করা হবে না। যাঁরাই এ ধরণের ঘৃণিত অপকর্মে লিপ্ত হবে তাঁদের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান।

লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে হামলা ও জাতির পিতার প্রতিকৃতি অবমাননার প্রতিবাদে এবং দোষী ও পরিকল্পনাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের পক্ষ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি শনিবার, বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

বিএসএমএমইউয়ের উপাচার্য দায়ীদের অবিলম্বে শাস্তির আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়ে বলেন, আগামী সাত দিনের মধ্যে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না হলে বাংলাদেশস্থ বৃটিশ হাই কমিশন ঘেরাও করা হবে। তিনি ১৯৭১ সালের মতো গর্জে উঠে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জাতির পিতার প্রকৃতি অবমাননাকারীদের রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেয়া সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে হামলা ও জাতির পিতার প্রতিকৃতি অবমাননাকে ঘৃণিত কর্মকা-হিসেবে উল্লেখ করেন এবং দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করার জোর দাবি জানান।

অন্য বক্তারা জাতির পিতার প্রতিকৃতি অবমাননাকে বাংলাদেশ বিরোধী ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল বলে উল্লেখ করেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা সাংবাদিক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, এডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো.  আকতারুজ্জামান, এ্যাটর্নি জেনারেল এডভোকেট মাহবুবে আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, বিএমএর সভাপতি ডাক্তার মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বিএফইউজে’র সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট মেম্বার সাংবাদিক মন্জুরুল ইসলাম বুলবুল, কেআইবি’র সভাপতি কৃষিবিদ এ এম এম সালেহ, আইইবি’র, সভাপতি প্রকৌশলী আব্দুস সবুর, বিএফইউজে’র মহাসচিব সাংবাদিক ওমর ফারুক, কেআইবির মহাসচিব কৃষিবিদ খায়রুল আলম প্রিন্স, প্রকৌশলী অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, স্বাচিপের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ, কৃষিবিদ ড. মো. সাইদুর রহমান সেলিম, শিক্ষক কর্মচারী ফন্টের প্রধান সমন্বয়ক অধ্যক্ষ কাজী ফারুক আহমেদ বাকবিশিসের সভাপতি অধ্যাপক নুর মোহাম্মদ তালুকদার, ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া, এডভোকেট মোতাহার হোসেন সাজু, এডভোকেট মোখলেসুর রহমান বাদল, ডা. মাজহারুল হক তপন, অধ্যাপক আসাদুল হক, এডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু, সাংবাদিক জয়ন্ত আচার্য, অধ্যাপক মিজানুর রহমান মজুমদার, আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের মো. হুমায়ুন কবীরসহ পেশাজীবী নেতৃবৃন্দসহ জাতীয় পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 


ঢাকা, শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৪৯২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন