সর্বশেষ
শুক্রবার ৬ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অদ্যাবধি প্রাপ্ত সবচেয়ে বড় মৌলিক সংখ্যাটি আবিষ্কৃত

বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮

prime-numbers.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

নতুন আবিষ্কৃত একটি প্রাইম বা মৌলিক সংখ্যা এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত মৌলিক সংখ্যাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড়। এতে মোট ২৩,২৪৯,৪২৫ টি অংক রয়েছে! এর নাম দেওয়া হয়েছে M77232917 এবং এটি এই শ্রেণির প্রাইমগুলোর মধ্যে ৫০তম।

এই প্রাইমটি একটি মার্জেন (Mersenne) প্রাইম। ২ সংখ্যাটিকে বারবার গুণ করলে তা হতে ১ বিয়োগ করলে অনেক সময় একটি প্রাইম সংখ্যা পাওয়া যায়। M77232917 সংখ্যাটিকে পাওয়া গেছে ২ কে ৭৭,২৩২,৯১৭ বার গুণ করে তা হতে ১ বিয়োগ করে। বোঝার সুবিধার্থে ছোট হতে বড় আরো কিছু মার্জেন প্রাইম যুক্ত করা হলো।

2^2-1 = 4 – 1 = 3,
2^3-1 = 8 – 1 = 7
2^5-1 = 32 – 1 = 31
2^7-1 = 128 – 1 = 127

এই তালিকার ৩, ৭, ৩১, ১২৭ এ সংখ্যাগুলো সবই প্রাইম সংখ্যা। তবে শুরুতে সংখ্যাগুলো যত ঘনঘন আসে একপর্যায় তত দ্রুত আসে না, তাই অদ্যাবধি কেবল পঞ্চাশটি মার্জেন প্রাইমই আবিষ্কৃত হয়েছে। নতুন আবিষ্কৃত প্রাইমটি এতোই বড় যে এটিকে যদি A4 আকারের কাগজে প্রিন্ট করা হয় তাহলে নয় হাজার পৃষ্টা লাগবে। আর প্রতি সেন্টিমিটারে দুটি করে অংক লিখে এক সরলরেখায় লিখে গেলে এর দৈর্ঘ্য হবে ১১৮ কিলোমিটার।

প্রাইম সংখ্যা খোঁজা অনেকের কাছে গুপ্তধন খোঁজার মতোই আকর্ষনীয়। কেননা, একটি সংখ্যা যত বড় হতে থাকে এটি প্রাইম কিনা তা বোঝা ততোই দুঃষ্কর হতে থাকে। তাই বর্তমানে নতুন একটি প্রাইম খুঁজে পাওয়ার জন্য পুরষ্কার ঘোষনা করা হয়েছে। কাজেই আক্ষরিক অর্থেই প্রাইম খোঁজা এখন গুপ্তধন খোঁজার শামিল!

যথাযথভাবে নতুন আবিষ্কৃত প্রাইমটির বিশেষভাবে গুরুত্ব নেই, কিন্তু বড় বড় প্রাইম সংখ্যা খুঁজে পাওয়ার গুরুত্ব আছে। এই সংখ্যাগুলোকে ব্যবহার করে গোপনবার্তা তৈরি করা হয়, যার ভিত্তিতেই অনলাইন ব্যাংকিং, অর্থলেনদেন, তথ্যের নিরাপত্তা ইত্যাদি নিশ্চিত করা হয়। এই সংখ্যাগুলো যত বড় হবে এগুলো খুঁজে পাওয়াও তত কঠিন হবে ফলে না জানা থাকলে কারো পক্ষে একটি গোপনবার্তা সংশ্লিষ্ট প্রাইমটি খুঁজে পাওয়া এবং বার্তার পাঠোদ্ধার করা দুষ্কর। তবে কম্পিউটারের ক্ষমতা বৃদ্ধির সাথে সাথে এগুলোর পাঠোদ্ধার করা সহজ হয়ে আসবে, ফলে অপেক্ষাকৃত বড় বড় প্রাইমের প্রয়োজন হবে। অন্য আরেকটি প্রয়োজনীয়তা হলো, বড় বড় প্রাইমগুলো আবিষ্কৃত হতে থাকলে আমরা সংখ্যার ধারায় প্রাইমের একটা প্যাটার্ন পেয়ে যেতে পারি। এখন পর্যন্ত প্রাইম সংখ্যার কোনো প্যাটার্ন নেই। অর্থাৎ কোন সংখ্যার পর বা কতগুলো সংখ্যার পর একটি করে প্রাইম আসবে তার সুনির্দিষ্ট কোনো সূত্র নেই।

প্রাইম সংখ্যাগুলো বের করা কঠিন আগেই বলা হয়েছে। বর্তমানে এগুলো বের করতে বিশেষ সফটওয়্যার এবং শক্তিশালী কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়। তবুও এগুলো খুঁজে পেতে দিনের পর দিন লেগে যায়। গণিতবিদগণ তাই সারাবিশ্বের কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের আহ্বান জানাচ্ছেন তাদের কম্পিউটারটিকে প্রাইম সংখ্যা খুঁজতে জন্য ব্যবহার করতে দেওয়ার জন্য। তবে এই কাজটি ঘরে বসেই করা যাবে। এর জন্য প্রয়োজন হবে একটি ইন্টারনেট সংযোগ এবং একটি সফওয়্যার যা ডাউনলোড করা যাবে এই লিংক হতে https://www.mersenne.org/download/। সূত্র: বিজ্ঞান পত্রিকা


ঢাকা, বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫৪০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন