সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৫ই আষাঢ় ১৪২৫ | ১৯ জুন ২০১৮

হাসপাতালেও থামেনি জাফর ইকবালের কলম

জাফর ইকবালের উপর হামলা

বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮

13.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট। হাসপাতালের সফেদ বিছানায় শুয়ে পত্রিকা পড়ছিলেন জনপ্রিয় লেখক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। একটু পর পত্রিকা পাশে রেখে কলম নিয়ে খাতায় কিছু লিখতে শুরু করেন। চোখের সামনে দেখা গেল এমন অনিন্দ্যসুন্দর দৃশ্য। হাসপাতালেও থেমে নেই লেখকের কলম। সত্যি এ যেন দুর্জেয় এক সৈনিক।

গতকাল মঙ্গলবার বেলা সোয়া ৩টার দিকে সিএমএইচে গিয়ে দেখা গেল, জাফর ইকবালকে যে কক্ষে রাখা হয়েছে তার পাশের কক্ষে একটি মনিটর রয়েছে। ওই মনিটর দিয়েই জাফর ইকবালকে দেখা যায়। চিকিৎসকের অনুমতি মেলার পর সেখানে গিয়ে জাফর ইকবালকে লিখতে দেখে মনের অজান্তে চোখের কোনায় জল এসে গেল। এ তো চোখের সামনে মনিটরে দেখা গেল সত্যিকারের বীরকে। উগ্রবাদ ও জঙ্গিবাদের নিকষ কালো থাবা যার জীবন প্রদীপই নিভিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছিল, তিনি জেগে আছেন। তার হাত আবার সচল। তার মতিস্ক সচল। তিনি হয়তো লিখছেন জীবনযুদ্ধের জয়গান!

জাফর ইকবালের চিকিৎসকরা জানালেন, তিনি এখন পুরোপুরি সুস্থ। গতকাল তাকে একটি ইংরেজিসহ তিনটি পত্রিকা পড়তে দেওয়া হয়েছে বলে জানান চিকিৎসকরা। হাসপাতালে মাঝে মধ্যে বইও পড়ছেন ড. জাফর ইকবাল। সরবরাহ করা হচ্ছে তার পছন্দের খাবার। জাফর ইকবালের স্ত্রী অধ্যাপক ইয়াসমিন হকের সঙ্গে যোগাযোগ করে চিকিৎসকরা জেনে নিয়েছেন পছন্দের খাবার তালিকা। সেই অনুযায়ী মঙ্গলবার জাফর ইকবালকে তার পছন্দের আইড় ও রুই মাছ খেতে দেওয়া হয়। তিনি সোমবার থেকেই স্বাভাবিক খাবার খেতে শুরু করেছেন।

কবে নাগাদ জাফর ইকবাল হাসপাতাল ছাড়তে পারবেন, সে ব্যাপারে সংশ্নিষ্ট একজন চিকিৎসক জানান, জাফর ইকবাল সুস্থ হয়ে উঠলেও তার হাসপাতাল ছাড়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে মেডিকেল বোর্ড। এ ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। হয়ত আরও কয়েক দিন থাকতে হবে।

হাসপাতালে জাফর ইকবালের সেবা-শুশ্রূষায় যারা নিয়োজিত তাদের খোঁজ-খবর নিচ্ছেন জাফর ইকবাল। তারা কাছে গেলে কুশল বিনিময় করছেন।

গত সোমবার আইএসপিআরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাফর ইকবাল বর্তমানে সচেতন ও আশঙ্কামুক্ত আছেন। দ্রুত আরোগ্য ও সংক্রমণ রোধের জন্য হাসপাতালে আপাতত দর্শনার্থী প্রবেশ কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

জাফর ইকবাল গত শনিবার হামলায় আহত হওয়ার পর সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ওই দিন তাকে ঢাকায় সিএমএইচে হেলিকপ্টারে স্থানান্তর করা হয়।

সূত্র: সমকাল


ঢাকা, বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ৮১১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন