সর্বশেষ
শুক্রবার ৬ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অস্ট্রেলিয়ায় খাবার অপচয় রোধে প্রশিক্ষণ

বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮

OB.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

খাবারের অপচয় ঠেকাতে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন শহরের বাসিন্দাদের দেয়া হবে প্রশিক্ষণ। প্রশিক্ষণ শেষে আবার নানা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখিও হবে তারা। লাভ ফুড, হেইট ওয়েস্ট শিরোনামে এই কর্মসূচী হাতে নিয়েছেন ব্রিসবেন সিটি কাউন্সিলর পিটার ম্যাটিক। তার লক্ষ্য দেড় মাসের মধ্যে শহরটির বাসিন্দাদের খাবার অপচয় নিয়ে সচেতনত করে তোলা।

প্রতিবছর ব্রিসবেনে ৯৭ হাজার টন খাবার অপচয় হয়। গড়ে একজন বাসিন্দা যে খাবার কেনে তার ২০ শতাংশই অপচয় করে। এই অপচয় কমাতে ছয় সপ্তাহের কর্মসূচির প্রস্তাব করেন সিটি কাউন্সিলর পিটার ম্যাটিক।

ব্রিসবেন সিটি কাউন্সিলর পিটার ম্যাটিক জানান, এতে আমাদের শহর পরিষ্কার, পরিবেশ সতেজ এবং আরও যুতসই করা যাবে। খাবার ফেলে দেয়ার ব্যাপারে সচেতনা বাড়লে খরচও অনেকটা কমবে।

কর্মসূচির শুরুতে অংশগ্রহণকারীদের প্রতি সপ্তাহের জন্য একটি কোরে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেবে আয়োজকরা। প্রথম সপ্তাহে অংশগ্রহণকারীরা প্রতিদিনকার বাড়তি কিংবা বাসি খাবারের পরিমাণ হিসেব করবে। দ্বিতীয় সপ্তাহে, নতুন খাদ্য সামগ্রী কেনা থেকে নিজেদের বিরত রাখবে।

তৃতীয় সপ্তাহে পরিমিত বাজার করার দক্ষতা তাদের অর্জন করতে হবে। নানা চ্যালেঞ্জ শেষে তারা শিখবে কিভাবে বাসি খাবার সংরক্ষণ ও পুনরায় ব্যবহার উপযোগী করা যায়।

ব্রিসবেনের বাসিন্দা নেইলসেন জানান, বাসি তরকারি বা খাবার ফেলে দেন না তিনি।

বাসিন্দা জেনিফার নেইলসেন বলেন, অবশিষ্টাংশ খাবার পশুদের খাওয়াই বা সার তৈরি করি। যাই খাবেন, তাই কিনুন। এতে আপনার প্রায় ২৫ শতাংশ খরচ কমবে। খাবার রান্না ও গ্রহণে সচেতন হওয়ায় আপনি সুস্বাস্থ্যের অধিকারি হবেন।

ব্যক্তিগত উদ্যোগ ছাড়াও এ কর্মসূচিতে এগিয়ে এসেছে বাণিজ্যিক বেশ ক'টি প্রতিষ্ঠানও। প্রতিবছর সুপারমার্কেট থেকে প্রায় ৭ লাখ টন খাবার অপচয় হয়। -ইন্ডিপেন্ডেন্ট


ঢাকা, বুধবার, মার্চ ৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১২০১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন