সর্বশেষ
বুধবার ৩০শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৪ নভেম্বর ২০১৮

এবার শামির ফোনালাপ ফাঁস করলেন স্ত্রী

শনিবার, মার্চ ১০, ২০১৮

image-25736-1520568688.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কার কথা বিশ্বাস করা হবে? মোহাম্মদ শামির? নাকি তাঁর স্ত্রীর। ভারতীয় পেসারের স্ত্রী একের পর এক বোমা ফাটিয়েই যাচ্ছেন। আর ওদিকে শামি দাবি করছেন, স্ত্রীর মাথা ঠিক নেই। এ কারণে নাকি এসব বলছেন। শামির স্ত্রী এবার হাজির হলেন ফোনালাপ নিয়ে। স্বামীর সঙ্গে তাঁর কথোপকথনের রেকর্ড অনলাইনে ছেড়ে দিয়েছেন হাসিন।

একাধিক মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানো আর শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ তো ছিলই। হাসিন জাহান স্বামীর বিরুদ্ধে দেশের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগও তুলেছেন! হাসিনের ভাষ্য, দুবাইয়ে আলিশবা নামের এক পাকিস্তানি মেয়ের কাছ থেকে মোহাম্মদ শামি টাকা নিয়েছিলেন। ইংল্যান্ডের ব্যবসায়ী মোহাম্মেদ ভাইয়ের পীড়াপীড়িতে শামি এই টাকা নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন হাসিন। এ ব্যাপারে তাঁর কাছে প্রমাণও আছে!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে হাসিন বলেছেন, ‘মোহাম্মদ শামি আমার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতে পারলে দেশের সঙ্গেও পারবে। দুবাইয়ে আলিশবা নামের এক পাকিস্তানি মেয়ের কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন শামি। ইংল্যান্ডের মোহাম্মেদ ভাইয়ের পীড়াপীড়িতে সে এই টাকা নিয়েছিল। আমার কাছে প্রমাণ আছে।’

শামির বিরুদ্ধে হাসিনের আইনজীবী জাকির হুসেইনের অভিযোগও গুরুতর। জাকির হুসেইন এর আগে বলেছিলেন, ‘পাকিস্তানের এক মেয়ের সঙ্গে শামির সম্পর্ক রয়েছে। ম্যানচেস্টারে বসবাসরত মামুদ ভাই নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে সেই মেয়ের সঙ্গে শামির পরিচয় ঘটে। এ ছাড়া কুলদীপ নামের একজনের সঙ্গেও তাঁর যোগাযোগ আছে। সে (কুলদীপ) আন্তর্জাতিক চক্রের সঙ্গে জড়িত। মেয়ে সরবরাহ করাই তাঁর কাজ।’

এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে স্বামীর সঙ্গের ফোনালাপের রেকর্ড ফাঁস করেছেন হাসিন। যেখানে হাসিনকে বলতে শোনা যায়, ‘শামি, দয়া করে মিথ্যা বোলো না। সত্যিটা কখন বলবে? আমার, আমাদের মেয়ে, আমাদের সংসারের প্রতি তো তোমার কোনো মায়া নেই। সব মায়া তো ওই পাকিস্তানি মেয়ের ওপর, দয়া করে তাই আলিশবার জন্য হলেও সত্যিটা বলবে? এই চ্যাটগুলো তোমার?’ পুরুষ কণ্ঠের জবাব, ‘না।’

এরপর হাসিন বলেন, ‘তুমি বলেছিলে তোমার দুবাইয়ের ভিসা নেই, তাই হোটেল রুম থেকে বেরোতে পারবে না। তাহলে দুবাইয়ের ভিসা কীভাবে পেলে? কেন মিথ্যা বলেছ? এটা তো পরিষ্কার তুমি আমার সঙ্গে মিথ্যা বলে যাচ্ছ।’

পুরুষ কণ্ঠের জবাব, ‘আমার ভিসা ছিল।’

হাসিন বলেন, ‘দুবাইয়ে যে হোটেলে তুমি ছিলে, সেই একই হোটেলে আলিশবার রুমের বিস্তারিত ওকে টেক্সট করেছ। এটাও কি মোহাম্মেদ ভাই করেছে? আলিশবা যখন সাত নম্বর বেল্টে (বিমানবন্দরে) অপেক্ষা করছিল, ও জানত তোমার ফ্লাইট কখন উড়াল দেবে আর পৌঁছাবে। এগুলোও কি মোহাম্মেদ ভাই করেছে?’

পুরুষ কণ্ঠের জবাব, ‘মোহাম্মেদ ভাই আলিশবাকে দিয়ে আমার কাছে টাকা পাঠিয়েছিল। আলিশবার কাছ থেকে আমাকে টাকা নিতে হয়েছে।’

তখন হাসিন বলেন, ‘আলিশবার সঙ্গে তোমার চ্যাটিংয়ে শুধু নোংরা নোংরা কথা লেখা। সেখানে কোথাও উল্লেখ নেই তুমি টাকা নেবে ওর কাছ থেকে। কিন্তু কাল রাতে আমি যখন তোমাকে আলিশবার কথা জিজ্ঞেস করলাম, তুমি উল্টো বললে আলিশবার কথা কেন আসছে?’

ওই কথোপকথনে হাসিন দাবি করেন, আলিশবার সঙ্গে শামির যৌন সম্পর্কও ছিল।

শামির বিপদ বাড়ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দাখিল করেছে। গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও জারি করা হয়েছে। প্রাথমিক অভিযোগের ভিত্তিতে শামির সঙ্গে চুক্তি স্থগিত করেছে বিসিসিআই। ওদিকে আইপিএলে শামির খেলা অনিশ্চিত হয়ে গেছে। যদিও সব অভিযোগ অস্বীকার করে শামি বলেছেন, ‘হাসিনের মাথা ঠিক নেই। আমার বিরুদ্ধে ও যত অভিযোগ এনেছে, সব ওকে প্রমাণ করতে হবে। আমি যদি ওর গায়ে হাত তুলে থাকি, ওকে সেটা প্রমাণ করতে হবে। দেশের হয়ে খেলার সময় আমি কারও কাছ থেকে টাকা নিয়েছি বলে ও যেটা অভিযোগ করেছে, আমি বলব, এমনটা করার বদলে মরে যেতে রাজি আছি।’

সূত্র: প্রথমআলো


ঢাকা, শনিবার, মার্চ ১০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১১০৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন