সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

‘বাংলাদেশের কোনও ব্যাটসম্যানকে এভাবে মারতে দেখিনি’

শনিবার, মার্চ ১৭, ২০১৮

191704_1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

২০১৬ সালের বিশ্ব টি-টোয়েন্টির আসরে ভারতের বিপক্ষে নিশ্চিত জয় হাতছাড়া হয়েছিল তার ভুলে। জেতার জন্য যখন ২ রান দরকার, তখন ভুল শটে আউট হয়ে ম্যাচ ‘ছেড়ে’ দিয়ে এসেছিলেন মাহমুদউল্লাহ। বেঙ্গালুরুর সেই ভুল এবার আর করেননি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অসাধারণ এক ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছেড়েছেন তিনি।

নিদাহাস ট্রফির অঘোষিত সেমিফাইনালে স্বাগতিক লঙ্কানদের বিপক্ষে শেষ ২ বলে দরকার ছিল ৬ রান। ওই পরিস্থিতিতে ১ বল আগেই বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হয় মাহমুদউল্লাহর বিশাল ছক্কায়। ১৮ বলে হার না মানা ৪৩ রানের ইনিংস খেলে ফাইনাল নিশ্চিত করে ছাড়েন মাঠ। জয়ের নায়ককে তাই প্রশংসার বৃষ্টিতে ভেজাচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমী বাংলাদেশিরা। একই সঙ্গে সতীর্থরাও মেতেছেন মাহমুদউল্লাহ-বন্দনায়।

অধিনায়ক সাকিব আল হাসান তো বলেই দিলেন, বাংলাদেশ দলে তার মতো আগ্রাসী ব্যাটসম্যান তিনি দেখেননি। মাহমুদউল্লাহ যা করেছেন, সাকিবের কাছে তা, ‘এককথায় অবিশ্বাস্য।’ জয়ের নায়কের প্রশংসা ঝরল তার কণ্ঠে, ‘তিনি ছিলেন ভয়ঙ্কর। তামিমও (ইকবাল) দুর্দান্ত, তবে এই ম্যাচের কোনও কিছুই আপনি মাহমুদউল্লাহর কাছ থেকে সরিয়ে নিতে পারবেন না। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের কোনও ব্যাটসম্যানকে কখনও এভাবে মারতে দেখিনি।’

বিষয়টি একটু ব্যাখ্যা করেই বোঝালেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার, ‘আপনি হয়তো ১০ ম্যাচের ৮টিতেই ৩০ বলে ৫০ করতে পারবেন, যদি না মুখোমুখি হতে হয় রশিদ খান, সুনিল নারিন কিংবা লাসিথ মালিঙ্গার। সত্যি বলতে শেষ দিকে মেরে খেলাটা আমাদের জন্য সবসময় কঠিন কাজ। আমরা কখনোই শেষ পাঁচ ওভারে নিখুঁতভাবে মেরে খেলতে পারিনি, সেদিক থেকে এই চাপের মধ্যেও যা হয়েছে, তা ছিল অসাধারণ।’ ক্রিকইনফো


ঢাকা, শনিবার, মার্চ ১৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৯৫৮২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন