সর্বশেষ
শনিবার ৩রা ভাদ্র ১৪২৫ | ১৮ আগস্ট ২০১৮

শিল্পকলা একাডেমিতে মঞ্চস্থ হবে মুকিদ চৌধুরীর ‘অপ্রাকৃতিক প্রকৃতি’

সোমবার, এপ্রিল ২, ২০১৮

APP1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাংলা নাট্যশিল্পে মুভমেন্ট থিয়েটারের জনক ও নাট্যভাস্কর ড. মুকিদ চৌধুরীকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কিছু নেই। সার্বজনীন পরিচিতির ক্ষেত্রে দেশ-বিদেশের বাঙালিদের কাছে তিনি একজন গুণধর ও উজ্জ্বল নাট্যব্যক্তিত্ব। একটি চরিত্রকে নির্মল শিল্পমায়ায় জীবন্ত করে ফুটিয়ে তুলতে তার জুড়ি নেই।

প্রাণবন্ত আখ্যানকাব্যে একের-পর-এক পাঠক ও দর্শকদের দৃষ্টি এবং মননকে চমকিত করে চলেছেন গুণী এই নাট্যকার, নির্দেশক ও কথা সাহিত্যিক। তার সৃজন আখ্যানের ভাঁজে-অভাঁজে নৈসর্গিক রূপমার বিস্তার শিল্পপ্রেমীদের আকৃষ্ট করে অমোঘ এক মোহমায়ায়। অনবদ্য কর্মমুখরতায় দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশের মাটিতেও সমানতালে সুনাম কুড়িয়ে চলেছেন বাংলার এই নাট্যভাস্কর।

মঞ্চের আলোচিত নাটক 'অশোকানন্দ', ‘অচীন দ্বীপের উপাখ্যান’, ‘একটি আষাঢ়ে স্বপ্ন’, ‘কর্ণপুরাণ’, ‘তারকাঁটার ভাজে’, ‘রাজাবলি’, ‘গোমতীর উপাখ্যান’, ‘চম্পাবতীসহ মধ্যযুগের আখ্যান নির্মাণে বাঙালির নাট্যচিন্তার প্রসার ঘটেছে ড. মুকিদ চৌধুরীর অনবদ্য নাট্যসৃজনে।

সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি হবিগঞ্জের থিয়েটার সংগঠন দেশ নাট্যগোষ্ঠী মঞ্চে এনেছে ড. মুকিদ চৌধুরী রচিত নতুন নাটক ‘অপ্রাকৃতিক প্রকৃতি’। গত জানুয়ারি মাসে মঞ্চে আসা এ নাটকটি এরই মধ্যে হবিগঞ্জে তিনটি সফল প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে সেখানকার দর্শক-সমালোচকদের মুগ্ধ করতে সমর্থ হয়েছে।

তারই আলোকে এবার ঢাকার মঞ্চে প্রথমবারের মত প্রদর্শিত হবে দেশ নাট্যগোষ্ঠীর এই নবপ্রয়াস। আগামী ২৭ এপ্রিল, শুক্রবার, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে ড. মুকিদ চৌধুরী রচিত এ নাটকটি। দেশ নাট্যগোষ্ঠী প্রযোজিত এ নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন ফখরুল হামিদ।

অনেকটা দেশজ ও রবীন্দ্র নাট্যধারার আদলে মঞ্চের পাদপ্রদীপের আলোয়ে নাটকটি উপস্থাপনের চেষ্টা করা হয়েছে। অস্পৃশ্য, অনাদৃত, অবহেলিত এক সন্তানহীন নারীর কাহিনি নিয়ে আবৃত হয়েছে ‘অপ্রাকৃতিক প্রকৃতি’। যেখানে নারীকে মনুষ্যত্বের সম্মানে উন্মুক্ত করা হয়েছে শিল্পের গহীনালোয়ে। নাটকে প্রকাশ পেয়েছে সন্তানহীন নারীদের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা, দ্বন্দ্ব-সংঘাত প্রভৃতি।

মূল চরিত্র ‘স্মৃতি’র জীবন সংসারের কাহিনি নাটকে নিপুণভাবে ফুটে উঠেছে। সন্তান লাভের আশায় ‘স্মৃতি’ ভণ্ড সাধুর আশ্রমে যেতেও কুন্ঠাবোধ করেনি। আর ‘মানব’ চিরন্তন প্রেমের আহ্বানে অধরাকে পাবার আশায় সংসার ত্যাগী হয় কিন্তু সংসারের মায়ামোহে আবার হয় ঘরমুখো। শত আয়োজন, শত প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয় প্রকৃতি বিমুখ হলে। বেকসুর প্রকৃতি মাঝে মাঝে হয়ে ওঠে অপ্রাকৃতিক বাংলার রূপ।


ঢাকা, সোমবার, এপ্রিল ২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১০২৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন