সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৮ই কার্তিক ১৪২৫ | ২৩ অক্টোবর ২০১৮

লন্ডনে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৯, ২০১৮

97d198cdd0f486361deb4f4cc331101e-5ad8d04a0e83a.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

কমনওয়েলথ সম্মেলনের সাইডলাইনে এ বৈঠকটি হয়। এতে বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সার্বিক দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

বৈঠকের পর এক টুইট বার্তায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন, ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক সুদৃঢ় করার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সুদূরপ্রসারী আলোচনা হয়েছে।

ঢাকায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক লন্ডনে শেখ হাসিনার সঙ্গে মোদির বৈঠক হওয়ার কথা নিশ্চিত করেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৫ সালে বাংলাদেশ সফর করেন। তার আমলে দু’দেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময় সম্পন্ন হলেও তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি সই হয়নি।

২০১৭ সালে ফিরতি সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত যান। ওই সময়েও তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি সই হবে বলে আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।এ ছাড়াও ভারতের পর্যটন নগরী গোয়ায় ব্রিকস-বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনের সাইডলাইনেও দুই নেতার মধ্যে বৈঠক হয়।

তবে বাংলাদেশ ও ভারতে সাধারণ নির্বাচনের আগে শেখ হাসিনা ও মোদির মধ্যে অনুষ্ঠিত লন্ডনের বৈঠকটি খুবই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে নরেন্দ্র মোদি আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, তার আমলেই তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি হবে। কিন্তু এ চুক্তির ব্যাপারে ভারতে ঐকমত্য এখনও সম্পন্ন হয়নি। তিস্তা চুক্তি করা সম্ভব হলে মোদি বাংলাদেশে নির্বাচনের আগে সফরে আসতে পারেন।

তিস্তা চুক্তির বাইরে রোহিঙ্গা ইস্যুতে পারস্পরিক সহযোগিতা নিয়ে ভারতের সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে। ভারতের পক্ষ থেকে আশ্বাস দেয়া হচ্ছে যে, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়াসহ এ সংকট নিষ্পত্তির ব্যাপারে বাংলাদেশের অবস্থানকে ভারত সমর্থন করে।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫১১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন