সর্বশেষ
রবিবার ৬ই কার্তিক ১৪২৫ | ২১ অক্টোবর ২০১৮

লিফট ব্যবহারে সৌজন্যতা

সোমবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৮

5.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বহুতল ভবন হোক আর বাসাবাড়ি৷ বাণিজ্যিক ভবন বা কয়েক তলার শপিং মল৷ গোড়া থেকে চূড়ায় ওঠার সহজ উপায় কী? একবাক্যে সবাই মেনে নেবেন লিফট! কিন্তু লিফট ব্যবহারে এমন সব আচরণ করা নিশ্চয়ই ঠিক নয়, যা অন্যের বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এই লিফটে উঠে লোকে আপনার কাছ থেকে সামান্য হলেও সৌজন্যবোধটুকুই চাইবে, বিরক্তি নয়।

আবার অনেক সময় ভুল আচরণের কারণে অসাবধানতাবশত দুর্ঘটনাও ঘটে থাকে। তাই লিফটে ওঠা-নামার সময় কিছু আদবকেতা মেনে চলা উচিত।

জেনে নিন লিফট ব্যবহারের যেসব আদবকেতা মেনে চলবেন-

# যদি আপনি লিফটে ওঠার পর লিফটের দরজা বন্ধ হওয়ার আগে অন্য কাউকে আসতে দেখেন তাহলে দরজা খোলার বাটন চেপে ধরে রাখুন। এটা এক ধরনের ভদ্রতা। অথবা দরজা বন্ধ হওয়ার সময় সে ঢুকতে গেলে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকবে।

# লিফটের মধ্যে কথা কম বলুন। উচ্চস্বরে কথা তো একদমই বলবেন না। লিফটে ফোনের নেটওয়ার্ক থাকে না। তাই কথা না শোনা গেলে অযথা চিৎকার করে কথা বলতে যাবেন না।

# পরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে লিফটে দেখা হয়ে গেলে তার সঙ্গে সৌজন্যমূলক কথা বলুন। অতিরিক্ত কথা বলে তাকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলবেন না।

# লিফটে ওঠার জন্য তাড়াহুড়া করবেন না। লাইনে দাঁড়ান, ধীরেসুস্থে লিফটে উঠুন এবং নামুন।

# এক বা দোতলায় যাওয়ার সময় চেষ্টা করুন যাতে লিফট ব্যবহার না করতে। দৌঁড়ে এসে প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়া লিফটে উঠতে যাবেন না। এতে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

# লিফটে চড়ার আগে নামতে দিন পরে উঠুন। এতে ধাক্কা লাগার সম্ভাবনা কম থাকবে। লিফটে যখন মানুষ কম থাকবে তখন মালপত্র ওঠানামার কাজ সেরে ফেলুন।

# ভদ্রভাবে সংকুচিত হয়ে লিফটে দাঁড়ান। যাতে অন্য কারোর অস্বস্তির কারণ না হন। লিফটের মধ্যে শব্দ করে খাবেন না। যতটা সম্ভব লিফটে খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

# লিফটে কাউকে ধাক্কা দিয়ে, কারো মাথা ডিঙিয়ে বাটন প্রেস করতে যাবেন না। ভদ্রভাবে নিজের ফ্লোর-বাটনে প্রেস করুন।

# লিফটের মধ্যে জোরে হাঁচি কিংবা কাশি এলে মুখে রুমাল চাপা দিন।

# লিফটম্যানদের সঙ্গে অযথা দুর্ব্যবহার করবেন না। তাদের সঙ্গে যথাসম্ভব ভালো ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

# কোনো কারণে লিফট মাঝপথে আটকে গেলে ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করুন। অযথা চেচামেচি করবেন না।

# হাসপাতালের লিফটে আগে রোগীকে উঠতে দিন। তারপর নিজে উঠুন।

# বয়স্কদের আগে লিফটে উঠতে দিন। অযথা তাড়াহুড়া করে তাদের সমস্যা করবেন না।

# শিশুদের নিয়ে সাবধানে লিফটে চলাচল করুন। যাতে কোনো দুর্ঘটনা না ঘটে।
 
# লিফটে মালামাল ওঠানোর সময় খেয়াল রাখবেন কেউ যাতে ব্যথা না পায়।


ঢাকা, সোমবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৬৬৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন