সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ১লা ভাদ্র ১৪২৫ | ১৬ আগস্ট ২০১৮

ফর্ম হারিয়ে লিভারপুলের দুশ্চিন্তার কারণ সালাহ

বুধবার, মে ৯, ২০১৮

amla-bg-20170605153853_1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

লিভারপুল এবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে। দলটি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ টেবিলেও তিনে। ইংলিশ ক্লাবটির এই দারুণ পারফরম্যান্সে মোহাম্মদ সালাহর অবদান যে–কারো চেয়ে বেশি। দলটির হয়ে এবার অভিষেক মৌসুমেই চল্লিশের বেশি গোল করেছেন।

মেসি-রোনালদোর সঙ্গে গোল করায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন সালাহ। কিন্তু এখন মৌসুমের শেষ অঙ্কে এসে সালাহ যেন হঠাৎ করেই ফর্ম হারিয়ে ফেলেছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনালের প্রথম লেগে তিনি সর্বশেষ গোল করেছিলেন। কিন্তু মিসরীয় ফরোয়ার্ড এরপর টানা তিন ম্যাচে গোলের দেখা পাননি। লিভারপুলের জন্য দুশ্চিন্তার ব্যাপার, এই তিন ম্যাচে সালাহ তার নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি।

রোমার বিপক্ষে প্রথম লেগের সেই ম্যাচের পর লিগে স্টোক সিটির বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে লিভারপুল। এই ম্যাচে সালাহ মৌসুমের অন্যতম বাজে মিস করেন। গোলপোস্টের সামনে স্টোক গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে রাখতে পারেননি। চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনালের ফিরতি লেগেও গোল পাননি সালাহ। খুব যে ভালো খেলেছেন, সেটাও নয়।

এরপর রোববার চেলসির বিপক্ষে লিভারপুলের ১-০ গোলের হারেও ঠিক পুরোনো ছন্দে দেখা যায়নি ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে। বরং এই ম্যাচে রেফারিকে বোকা বানাতে গিয়ে সমালোচনা ও হাস্যরসের জন্ম দিয়েছেন।

চেলসি ডিফেন্ডার গ্যারি কাহিলের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে পরিষ্কার ‘ডাইভ’ দেন সালাহ। রেফারির চোখ এড়ায়নি। পরিণামে মৌসুমের প্রথম কার্ড দেখতে হয়েছে সালাহকে। আর সংবাদমাধ্যমের মতে, সালাহর ‘ডাইভ’টি এই মৌসুমের অন্যতম বাজে। এই তিন ম্যাচে সালাহর ফর্ম হারিয়ে ফেলার ইঙ্গিতটা কিন্তু লিভারপুলের জন্য সত্যি দুশ্চিন্তার।

প্রথমত, সামনেই চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনাল। ২৬ মে কিয়েভে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে লিভারপুল। ১৩ বছর পর লিভারপুলের চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জয়ের স্বপ্নপূরণের এই ম্যাচে সালাহ তো ভরসা। কিন্তু তার আগে সালাহ যে ফর্ম দেখাচ্ছেন, সেটা তো অ্যানফিল্ডের ক্লাবটির জন্য অশনিসংকেত।

দ্বিতীয়ত, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ টেবিলে শীর্ষ চারের সমীকরণ। স্টোক সিটির বিপক্ষে সেই ম্যাচে সালাহ নিশ্চিত গোলটা মিস না করলে লিভারপুলকে এই সমীকরণের জালে পড়তে হতো না। এমনও হতে পারে, এখন টেবিলের তিনে থাকলেও মৌসুম শেষে লিভারপুলকে দেখা যেতে পারে শীর্ষ চারের বাইরে!

৯৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ আগেই নিশ্চিত করা ম্যানচেস্টার সিটি কারও ধরাছোঁয়ার মধ্যে নেই। ৩৬ ম্যাচে ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আর ৩৭ ম্যাচে ৭২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় লিভারপুল। তাঁদের চেয়ে ১ ম্যাচ কম খেলা টটেনহাম ৭১ পয়েন্ট নিয়ে চারে। পঞ্চম চেলসির সংগ্রহ ৩৬ ম্যাচে ৬৯ পয়েন্ট। অর্থাৎ লিভারপুল তাদের শেষ ম্যাচে ব্রাইটনকে হারাতে না পারলে শীর্ষ চারের বাইরে ছিটকে পড়তে পারে। কারণ, তখন টটেনহাম ও চেলসি তাদের শেষ দুই ম্যাচ জিতলে লিভারপুলকে টপকে যথাক্রমে তিনে ও চারে উঠে যাবে।


ঢাকা, বুধবার, মে ৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১৪৩০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন