সর্বশেষ
শনিবার ৯ই আষাঢ় ১৪২৫ | ২৩ জুন ২০১৮

সাদা চুল কালো করার ঘরোয়া উপায়

বৃহস্পতিবার, মে ১০, ২০১৮

bangladesh_647_071615115348.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বৈরি আবহাওয়া ও নানা কারণে মাত্র ৩০ বছর বয়সে চুল পাকা শুরু হয় অনেকের। এ অবস্থায় চিন্তার যেন শেষ নাই। কি করলে অকালে চুল পাকার হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়, তার উপায় খুজে বেড়াই। এই কারণে আজ এমন কিছু প্রকৃতিক হেয়ার মাস্কের কথা আলোচনা কর হলো, যা নিয়মিত চুলে লাগালে পেকে যাওয়া চুল কালো হতে বেশি দিন লাগবে না। সেই সঙ্গে চুলের উজ্জ্বতা এবং সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পাবে চোখে পড়ার মতো।

আমলা ও হেনার প্যাক :
এই হেয়ার মাস্কটি বানাতে প্রয়োজন পরবে এক কাপ হেনার পেস্ট, তিন চামচ আমলার পাউডার এবং এক চামচ কফি পাউডার। সবকটি উপাদান একসঙ্গে মেশানোর পর ভালো করে চুলে লাগিয়ে কম করে এক ঘন্টা অপেক্ষা করতে হবে।

সময় হয়ে গেলে সালফার ফ্রি শ্যাম্পু দিয়ে ভালো করে চুলটা ধুয়ে নিন। এভাবে মাসে একবার চুলের পরিচর্যা করলে চুল কুচকুচে কালো হয়ে তো যাবেই, সেই সঙ্গে চুলের গোড়ায় পুষ্টির ঘাটতি দূর হবে। এর কারণে হেয়ার ফলও কমতে শুরু করবে।

লাল চা :

সাদা চুল কালো করতে লাল চায়ের কোনো বিকল্প হয় না বললেই চলে। আসলে এই পানীয়টিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপকারি উপাদান চুলের অন্দরে প্রবেশ করে চুলের রং বদলে দেয়। শুধু তাই নয়, নিমেষে চুলকে যদি উজ্জ্বল বানাতে হয়, তাহলেও কাজে লাগাতে পারেন লাল চাকে।

এক কাপ জলে ২ চামচ চায়ের পাতা ফেলে পানি ফোটাতে হবে। যখন দেখবেন পানি ফুটতে শুরু করেছে, তখন আঁচটা বন্ধ করে পানি ঠান্ডা করে নিতে হবে। এরপর মিশ্রণটি ভালো করে চুলে লাগিয়ে কম করে ১ ঘন্টা অপেক্ষা করে হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফলতে হবে। সপ্তাহে ১ বার এই ঘরোয়া টোটকাটি ব্যবহার করলে উপকার পাবেন হাতেনাতে।

হেনা রেমেডি :
এতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল প্রপাটিজ, তেমনি রয়েছে আরো অনেক উপকারি উপাদান। এটি স্কাল্পে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কাকে যেমন কমায়, তেমনি সাদা চুলকে নিমেষে কালো করে দিতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়। সেই সঙ্গে চুলের অন্দরে পি এইচ লেভেল বাড়ানোর মধ্যে দিয়ে চুলের সৌন্দর্য বাড়াতেও সাহায্য করে। এক্ষেত্রে ২ চামচ চা পাতা, ৪ চামচ হেনা পাউডার, ১ চামচ লেবুর রস এবং ১ চামচ আমলা পাউডারের প্রয়োজন পরবে।

প্রথমে এক কাপ পানিতে হেনা পাউডারটা ৮ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। অন্যদিকে এক কাপ চায়ে চায়ের পাতা পেলে পানিটাকে ফুটিয়ে নিতে হবে। তারপর পানি ঠান্ডা করে তাতে হেনার পেস্টটা মিশিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে তাতে লেবুর রস এবং আমলা পাউডারটা মিশিয়ে মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে। পেস্ট শুকাতে শুকিয়ে গেলে ভালো করে চুলটা ধুয়ে ফেলতে হবে।

নারকেল তেল এবং লেবুর রস :
এই দুটি উপাদান চুলের অন্দরে প্রবেশ করে পিগমেন্ট সেলের গ্রোথকে আটকে দেয়। এর ফলে সাদা হয়ে যাওয়া চুল তো কালো হয়, সেই সঙ্গে আরো চুল সাদা হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও কমে। তাই তো চটজলদি সাদা চুলকে কালো করতে এই দুই প্রকৃতিক উপাদানকে কাজে লাগাতে ভুলবেন না।

প্রসঙ্গত, এই হেয়ার প্যাকটি বানাতে প্রয়োজন পরবে ২ চামচ নারকেল তেল এবং ১ চামচ লেবুর রসের। এই দুটি উপাদান একসঙ্গে মিশিয়ে তা স্কাল্পে লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করতে হবে। তারপর ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে চুলটা। প্রসঙ্গত, এই ঘরোয়া টোটকাটির সুফল পেতে সপ্তাহে ২ বার এটিকে কাজে লাগাতে হবে।

কারি পাতা :
ছোট একটা পাত্রে ৩ চামচ নারকেল তেলে নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো কারি পাতা ফেলে কিছু সময় গরম করে নিতে হবে। যখন দেখবেন কারি পাতাটা কালো হতে শুরু করেছে, তখন আঁচটা বন্ধ করে দিতে হবে। এবার তেলটা ঠান্ডা করে সেটি স্কাল্পে লাগিয়ে ভালো করে মাসাজ করতে হবে। এরপর ঘন্টা খানেক অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

 


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মে ১০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ১৯৯৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন