সর্বশেষ
সোমবার ৭ই কার্তিক ১৪২৫ | ২২ অক্টোবর ২০১৮

'সময় মেনে চলতে গিয়ে বড় সুযোগ হাতছাড়া করে ফেলি'

বৃহস্পতিবার, মে ১৭, ২০১৮

61EDg1EZJaL._SL1296_.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বলিউড সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন নিজের সৌন্দর্য এবং অভিনয়গুণে দর্শকদের মনে স্থায়ী জায়গা করে নিয়েছেন। ঐশ্বরিয়ার বয়স ৪৪ বছর হলেও কাজ বাছাইয়ের সময় খুবই ছেলেমানুষি আছে তার।

চলতি কান চলচ্চিত্র উৎসবে সাংবাদিকদের সামনে এই অভিনেত্রী জানান, ‘আমার মনে হয়, ছবি পছন্দের সময় আমার আচরণ স্কুলের মেয়েটির মতো। সময়ের ব্যাপারে আমি খুব সচেতন। আর সময় মেনে চলতে গিয়ে বড় বড় সুযোগ হাতছাড়া করে ফেলি।’

সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী ভাষ্য, 'যখন যে কাজ করেন, তখন সেই কাজেই পূর্ণ মনোযোগ দেন। এ জন্য অনেক ভালো চলচ্চিত্র বা অন্য অনেক লাভজনক প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে হয়েছে তাকে। তবে এখন এই নায়িকা মনে করেন, এসব করে তিনি ভুলই করেছেন'।

বলিউডে ঐশ্বরিয়ার অন্য অনেক সহকর্মী একের পর এক কাজ করছেন। তারা তো ঠিকই সময় বের করে নিতে পারছেন। ক্যারিয়ারের এ পর্যায়ে এসে বচ্চন-বধূ মনে করছেন, ছবি বাছাইয়ের ব্যাপারে তার আরো একটু উদার হওয়া উচিত। বেশি বেশি ছবিতে অভিনয় করতে তারও ইচ্ছা হয়। কিন্তু সব মিলিয়ে আর হয়ে ওঠে না।'

ঐশ্বরিয়া মনে করেন, এই পৃথিবীতে অসংখ্য মানুষের বাস। সেসব মানুষের আলাদা গল্প আছে। তাই ভিন্নধর্মী গল্পের চলচ্চিত্র তৈরির জন্য গল্পের কোনো অভাব হবে না। ক্যারিয়ারের একদম শুরু থেকেই ছবি বাছাইয়ের ক্ষেত্রে তিনি অন্যকে পাত্তা না দিয়ে নিজের মনের কথা শুনেছেন। ছবি হিট হবে না ফ্লপ, সেই কথা না ভেবে শুধু গল্প নিয়ে ভেবেছেন।

মেয়ে আরাধ্যা জন্মের পাঁচ বছর পর ‘জাজবা’ ছবি দিয়ে বলিউডে ফেরেন । ছবিটি তেমন ব্যবসা করতে পারেনি। মণি রত্নমের তামিল ছবি ‘ইরুভার’ দিয়ে অভিনয় শুরু করেন ঐশ্বরিয়া। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে মণি রত্নম ছাড়াও সঞ্জয় লীলা বানসালি, আশুতোষ গোয়ারিকর, সুভাষ ঘাইয়ের মতো অনেক জনপ্রিয় পরিচালকের সঙ্গে কাজ করেছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন।

সন্তানের জন্য নিজেকে অনেক দিন চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরিয়ে রেখেছিলেন। এখন সন্তান বড় হয়েছে। তাহলে কি চলচ্চিত্রে আগের মতো নিয়মিত হবেন ঐশ্বরিয়া? জবাবে তিনি জানান, ‘আমি বেশি ছবিতে কাজ করতে চাই। কিন্তু বাস্তবে আরাধ্যর মায়ের চরিত্রেই নিজেকে সবচেয়ে উপভোগ করি। তাই কোনো ছবির প্রস্তাব এলে মনে হয়, আচ্ছা মেয়েটার সঙ্গে বরং আরেকটু সময় কাটাই। এরপরের প্রস্তাব এলে ভেবে দেখা যাবে।’

তবে এই তারকাও কম ‘ট্রল’-এর স্বীকার হননি। তবে এসব নিয়ে একদম মাথা ঘামান না। তার কাছে এই ব্যাপারগুলো অসম্মানের নয়। তারকা হলে প্রশংসার সঙ্গে মানুষের সমালোচনাও শুনতে হবে—এমনি মনোভাব নিয়ে তিনি কাজ করছেন। তবে নারীরা একে অন্যকে নিয়ে অযথা নেতিবাচক ভাবনা ছড়ালে মোটেও ভালো লাগে না তার।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মে ১৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ২৫৫০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন