সর্বশেষ
শনিবার ৩রা ভাদ্র ১৪২৫ | ১৮ আগস্ট ২০১৮

ইফতারিতে তৈরি মজাদার দইবড়া

সোমবার, মে ২১, ২০১৮

61EDg1EZJaL._SL1296__5.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রমজানে প্রতিদিনের ইফতারেই চাই স্পেশাল কোনো আইটেম। রোজা বেশি দীর্ঘ ও গরমকালে হওয়ায় ঠান্ডা ঠান্ডা খাবার খেতে সবাই বেশি পছন্দ করে। এই রমজানে পাঠকদের জন্য দেয়া হয় মজাদার আর স্বাস্থ্যকর সব ইফতার আইটেমের রেসিপি। খাদ্য প্রেমীদের জন্য আজ দেয়া হলো লোভনীয় ও সুস্বাদু দইবড়ার রেসিপি।

উপকরণ :
মাষকলাই ডাল আধা কাপ, জিরা গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, শুকনো মরিচ ৬-৮ টি, পাঁচফোড়ন ১ টেবিল চামচ, বিট লবণ আধা চা চামচ, তেল ১কাপ, পুদিনা পাতা কুচি ২চা চামচ, মিষ্টি অথবা টক দই ৩ কাপ, তেঁতুলের ক্বাথ আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি :
ডাল ভালো করে ধুয়ে ৩-৪ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। জিরা, ধনে, গোলমরিচ, পাঁচফোড়ন ও শুকনো মরিচ আলাদা আলাদা টেলে একসঙ্গে গুঁড়ো করুন। ডাল শিলপাটায় বেটে নিন। সামান্য পানি দিয়ে ডাল খুব ভালো করে ফেটে বাটিতে পানি নিয়ে ছোট একদলা ডাল পানিতে ফেলুন। ভাসলে আর ফেটতে হবেনা।

১টি বড় পাত্রে ৬ কাপ পানি ও ২ চা চামচ লবণ মিশিয়ে রেখে দিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে অল্প ডাল নিয়ে চ্যাপ্টা আকারের বড়া ভাজুন। ভাজা হলে তেল থেকে তুলে লবন-পানির মধ্যে ছেড়ে দিন। এভাবে সব ডালের বড়া ভাজুন। বড়া ভাজার সময় না ফুলে উঠলে সামান্য পানি দিয়ে ডাল আবার ফেটিয়ে নিন।

আরেকটি পাত্রে দই ফেটিয়ে নিন। ঘন হলে সামান্য পানি দিয়ে ফেটুন। স্বাদমতো লবণ, চিনি ও মসলা মেশান। দইবড়ায় মিষ্টি দই দিলে চিনির পরিবর্তে তেঁতুল দেবেন। এবার আগে থেকে গুঁড়া করে করে রাখা ভাজা মসলা ২ চা চামচ মেশান।

বড়ার পানি ছেঁকে নিয়ে একটা কাঁচের বাটিতে বড়াগুলো রাখুন। বড়ার ওপরে দই এর মিশ্রণ ঢেলে দিন। ওপরে গুঁড়া মশলা ছিটিয়ে দিন। পুদিনাপাতা বা ধনেপাতার কুচি দিন। বড়া ২ ঘণ্টা দই এ ভিজতে দিন। ইচ্ছা করলে ফ্রিজেও রাখতে পারেন। তাহলে দই বড়া আরো বেশি সুস্বাদু হবে।


ঢাকা, সোমবার, মে ২১, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৮১৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন