সর্বশেষ
শনিবার ৭ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শ্রীমঙ্গলে ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনা

মঙ্গলবার, মে ২২, ২০১৮

9.jpg
তোফায়েল পাপ্পু, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি :

বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হবে, আর বাংলাদেশের ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা শুরু হবে না এমনটা কি আর ভাবা যায়। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হচ্ছে এবারের বিশ্বকাপের ২১তম আসর। কিন্তু মাসখানেক আগেই সুদূর বাংলাদেশে বিশ্বকাপ উন্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে।

এ অপেক্ষায় রয়েছে দেশের ফুটবলপ্রেমীরা। সারাদেশের মতো মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলেও ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাসহ বিভিন্ন দলের ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা শুরু হয়েছে।

ফুটবল হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। এবার ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ রাশিয়া। ১৪ জুন রাশিয়া ও সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়েই পর্দা উঠবে ফুটবল মহাযজ্ঞের। তবে এখনই মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে শুরু হয়ে গেছে খেলার মাঠের বাইরের উত্তেজনা। ইতোমধ্যে শহরের বিভিন্ন দোকানে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন দেশের পতাকা। একই সঙ্গে পতাকা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে দর্জি কারিগরেরা।

গত এক সপ্তাহ শহরের বিভিন্ন রাস্তা, স্কুল-কলেজের সামনে ফেরি করে বিভিন্ন দেশের পতাকা বিক্রি করতে দেখা যায়। কেউ কেউ কাঁধে একটি বাঁশের লাঠি তার উপর থেকে নিচ পর্যন্ত ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, স্পেন, পর্তুগাল, ফ্রান্স ও বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের পতাকা ঝুলিয়ে রাখা আছে।

জানা গেছে, রাশিয়া বিশ্বকাপের ৩২টি দল নির্ধারণ হয়ে গেছে। আগামী ১৪ জুন মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে পর্দা উঠবে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও ক্রীড়া প্রদর্শনীর। আর ১৫ জুলাই একই ভেন্যুতে ফাইনালের মাধ্যমে পরবর্তী চার বছরের বিশ্বসেরা দেশের হাতে উঠবে বহুল কাঙ্ক্ষিত ট্রফিটি।

বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে শ্রীমঙ্গল শহরের বিপণীগুলোতেও সাজিয়ে রাখা হয়েছে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনাসহ বিভিন্ন দলের পতাকা। পছন্দের দলের পতাকা কিনতে ভিড় করছেন ফুটবলপ্রেমীরা।

শহরের চৌমুহনায় ফেরি করে পতাকা বিক্রি মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, 'সাইজ অনুযায়ী একটি পতাকার দাম সর্বোচ্চ ২০০ ও নিম্ন ৮০ টাকা ধরে বিক্রি করা হচ্ছে। পতাকার মধ্যে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার পতাকার চাহিদা বেশি। আবার অর্ডার দিলেও পতাকা তৈরি করে দেওয়া হয়।'

শ্রীমঙ্গল ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ফেরিওয়ালা পতাকা বিক্রেতা আবুল কাসেম জানান, বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার কয়েকদিন বাকি। আর তাই পতাকা বিক্রি শুরু হয়েছে। চাহিদা আছে পতাকার কিন্তু সেটা কম। কারণ খেলা শুরু হওয়ার পর থেকেই ক্রেতাদের চাহিদা বাড়বে।

এদিকে পতাকা বিক্রেতা ফেরিওয়ালার পাশাপাশি দর্জিরাও বসে নেই। বিশেষ করে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার পতাকা তৈরি নিয়ে ব্যস্ত থাকছেন। দর্জি মো: সাইফুল ইসলাম বলেন, 'এখন কাজের চাপ কম তাই এখন থেকেই পতাকা তৈরি করে রাখা হচ্ছে। যাতে চাহিদার সময় বিক্রি করা যায়। কারণ খেলা শুরুর ১৫দিন আগে থেকেই বিক্রি শুরু হয়। সেই সময় পতাকা বানানো অনেক কষ্টকর। বিভিন্ন সাইজে পতাকা তৈরি করা হচ্ছে। ৪-৫ হাত পতাকা থেকে শুরু করে ছোট পতাকাও তৈরি করা হয়। আবার অর্ডার অনুযায়ী পতাকা তৈরি করা হচ্ছে। একটি পতাকা ৫০-৩০০ টাকা পর্যন্ত নেওয়া হয়।'

শ্রীমঙ্গল শহরের বিভিন্ন এলাকায় এখন থেকেই তরুণরা ফুটবলের আমেজে মেতে উঠেছেন। এলাকার বাসা বাড়ির দেয়ালে লিখন, যার যার সাপোর্ট অনুযায়ী দেশের পতাকা দেয়ালে আঁকার কাজ শুরু করেছেন। বিশেষ করে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানি সহ বিভিন্ন দেশের পতাকা আঁকছেন তারা। আবার বিভিন্ন ছন্দেও দেয়ালে লিখছেন।

ফুটবলপ্রেমী ব্রাজিল সমর্থক তামিম চৌধুরী বলেন, 'সেই ছোটবেলা থেকেই বিশ্বকাপের প্রতি আগ্রহ বেশি। প্রতি বছরই ব্রাজিলের পতাকা দেয়ালে আর্ট করাই, বড় করে পতাকা তৈরি করি, এলাকার ছোট বড় সবাই মিলে বড় পর্দায় ব্রাজিলের খেলা দেখি। এবারও দেখব। এবার আমাদের সাপোর্টিং দল বিশ্বকাপ জিতবেই।'

ফুটবলপ্রেমী আর্জেন্টিনা সমর্থক সাখাওয়াত হোসেন লিমন, 'বলেন সবসময় তো আর এরকম বড় আসর হয় না। ৪ বছর পরে আসে, সে অপেক্ষায় সবাই থাকে। প্রতি বছরই আমরা বড় করে আর্জেন্টিনার পতাকা তৈরি করে থাকি এবারও ব্যতিক্রম হবে না। আশা রাখি এবারের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ট্রফিটি জয় করবে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, মে ২২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৩৯৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন