সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৪ঠা পৌষ ১৪২৫ | ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮

জোড়া লাগা জমজ শিশু জন্মগ্রহণের কারণ

সোমবার, জুন ৪, ২০১৮

twins.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বুক জোড়া লাগা কিংবা মাথা জোড়া লাগা জমজ শিশু জন্মগ্রহণের খবর মাঝে মধ্যেই শোনা যায়। যা বেশ আলোচনার সৃষ্টি করে। এটি একটি বিশেষ ধরনের সমস্যা, যেটাকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় ক্রানিওপেগাস। এই জটিল সমস্যাতে শিশুরা তাদের খুলি এবং মগজ শেয়ার করে থাকে একে অপরের সঙ্গে।

হাফিংটন পোস্ট তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই বিষয়ে অনেকে অনেক থিওরি দিয়েছেন যে, কেন এই ধরনের শিশুরা জন্মগ্রহণ করে।

ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড মেডিকেল সেন্টারের মতে, ‘কনজয়েন্ট ‍টোয়াইন’ তাদের বলা হয় যারা শারীরিকভাবে একসঙ্গে সংযুক্ত থাকে। যে সকল টোয়াইনস আলাদাভাবে জন্মগ্রহণ করে তাদের ভ্রুণ তৈরি হওয়ার সময়ই দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে দুইটি আলাদা ভিন্ন ভিন্ন ভ্রুণ তৈরি হয়। আর যে সকল ভ্রুণ জন্মগ্রহণের সময় পৃথক হতে গিয়ে সম্পূর্ণরুপে হতে পারে না, তারাই পরবর্তীতে কনজয়েন্ট টোয়াইন হিসেবে জন্মগ্রহণ করে।

মায়ো ক্লিনিক এর মতে, একটা ভ্রূণ জন্মগ্রহণের আট থেকে বার দিনের মধ্যে আইডেন্টিক্যাল টুয়াইন আলাদা হতে শুরু করে। এটা ধারণা করা হয় যদি এই প্রক্রিয়াটি ভ্রুণ গঠনের পরে আরো দেরি করে শুরু হয় আনুমানিক ১৩ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে তাহলেই সম্ভবত কনজয়েন্ট টুয়াইনের জন্ম হয়।

সিটেল চিলড্রেন হসপিটাল এর মতে, কনজয়েন্ট টোয়াইন এর ডিম্বাণু আগে থেকেই বিভক্ত হয়ে থাকে এবং পরে সেটা একত্রিত হয়ে পরে ভ্রুণ তৈরি করে।

ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড বলেছে, আনুমানিক দুই লাখ নবজাতক শিশুর মধ্যে মাত্র একটি শিশু কনজয়েন্ট টোয়াইন হিসেবে জন্মগ্রহণ করে। তবে এর মধ্যে বেশিরভাগ শিশুই প্রথমদিনেই মারা যায়।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আনুমানিক চল্লিশ থেকে ষাট শতাংশ পর্যন্ত জোড়া লাগা শিশুরা মৃতবস্থায় জন্মায়।

ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ডের মতে, ক্রানিওপেগাস টোয়াইনরা খুবই বিরল হয়ে থাকে। সারা বছর যতগুলো টোয়াইন জন্মগ্রহণ করে এর মধ্যে দুই শতাংশ ক্রানিওপেগাস টোয়াইন হিসেবে জন্মগ্রহণ করে।


ঢাকা, সোমবার, জুন ৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১৬১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন