সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২০ নভেম্বর ২০১৮

কাঠমান্ডু ঘোষণার মধ্য দিয়ে শেষ হলো বিমসটেক সম্মেলন

শুক্রবার, আগস্ট ৩১, ২০১৮

BIMSTEC20180831140313.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কাঠমান্ডু ঘোষণার মধ্য দিয়ে শেষ হলো ৪র্থ বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টিসেক্টারাল টেকনিক্যাল এন্ড ইকোনোমিক কোঅপারেশন, বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলন।

শুক্রবার সকালে হোটেল সোয়াল্টি ক্রাউন প্লাজায় শুরু হয় সম্মেলনের অধিবেশন। দুপুরে অধিবেশনের সমাপনী ঘোষণা দেয়া হয়। এসময়, বিমসটেককে শক্তিশালী করতে নতুন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণে একমত হন সদস্য দেশগুলোর সরকার প্রধানরা।

সদস্য দেশগুলোর পারস্পারিক বিদ্যুত সহযোগিতা বাড়াতে বিসমটেক গ্রিড গড়ে তোলার সমঝোতা হয়। চুক্তির অপেক্ষায় আছে মুক্ত বাণিজ্য ও অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদসহ আরো দুটি চুক্তি।

কাঠমান্ডু ঘোষণায় বিমসটেকভুক্ত দেশের মানুষের উন্নয়নে পারস্পারিক সহযোগিতার ওপর জোর দিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রী, বিদ্যুৎ পর্যটনের মতো খাতগুলোতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।

পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের মধ্যে।

শুক্রবার সকালে বিমসটেকের সমাপনী অনুষ্ঠানসহ রিট্রিট সেশনে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্বিতীয় দিনের অধিবেশনে মন্ত্রী পর্যায়ের ১৫ ও ১৬তম বৈঠকের প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হয়।

পরে, বিমসটেক সদস্য দেশগুলোর মধ্যে একটি বৃহৎ কাঠামোর আওতায় গ্রিড সংযোগের মাধ্যমে আঞ্চলিক পর্যায়ে বিদ্যুৎ লেনদেনে একমত হন জোটভুক্ত দেশের সরকার প্রধানরা। এ সংক্রান্ত একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়।

বৃহস্পতিবার নেপালে শুরু হয় দুদিনের বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, নেপালের প্রধানমন্ত্রী এবং চতুর্থ বিমসটেক সম্মেলনের চেয়ারপার্সন কেপি শর্মা ওলি, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, ভুটানের অন্তবর্তী সরকারের প্রধান উপদেষ্টা দাশো সেরিং ওয়াংচুক এবং বিমসটেকের অন্যান্য নেতারা উদ্বোধনী অধিবেশনে ভাষণ দেন।


ঢাকা, শুক্রবার, আগস্ট ৩১, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৭৮৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন