সর্বশেষ
রবিবার ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৮ নভেম্বর ২০১৮

‘চিকিৎসক সুরক্ষা আইন’ দাবিতে ময়মনসিংহে মানববন্ধন

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮

rrr.jpg
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :

ময়মনসিংহে ‘চিকিৎসক সুরক্ষা আইন’সহ বিভিন্ন দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইন্টার্ন চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহের উইনারপাড়, চুরখাইয়ে কমিউনিটি বেজড বেসরকারি মেডিকেল কলেজের সামনে এ মানববন্ধন হয়।

মানববন্ধনে বলেন, ‘রাফিয়ার মৃত্যুতে আমরা দুঃখিত। সুষ্ঠু তদন্ত করা হোক। তদন্তের আগেই মানহানিকর বক্তব্য করা ঠিক নয়। অধ্যাপিকা ড. শিলাসেন এবং সহকারী অধ্যাপক ডা. মনির হোসেন ভূইয়াকে ঘিরে মিথ্যা অপপ্রচারণামূলক ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনের মাধ্যমে আরো দবি তুলেন অংশগ্রহণকারীরা।

তারা দাবি জানান, চিকিৎসা সমাজে বারংবার হেনস্থা ও মানহানির প্রতিরোধে চিকিৎসক সুরক্ষা আইন প্রণয়ন চাই। দাবি না মানলে আগামীতে তারা বৃহত্তম আন্দোলনে যাবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

এদিকে সম্প্রতি শহরের ফিরোজ জাহাঙ্গির মোড়, চরপাড়া মোড় এলাকায় ইতিপূর্বে মানববন্ধন হয়। তারা ওই চিকিৎসকদের অবহেলায় শিলাঙ্গন হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী রাফিয়ার মৃত্যুর জন্য দায়ী করে ঘটনার প্রতিবাদ করে।

প্রসঙ্গত, রাফিয়ার তলপেটে ব্যথা অনুভব হলে গত ২৬ আগস্ট বিকালে তাকে গাইনি চিকিৎসক ডা. শিলা সেনের কাছে নিয়ে যান বাবা ব্যবসায়ী মাহমুদ বাবু। সেদিনই সন্ধ্যায় শিলা সেন তার ব্যক্তিগত ক্লিনিক শিলাঙ্গনে রাফিয়াকে ভর্তির জন্য নির্দেশ দেন।

এরপর শিলাঙ্গনে টানা দুই দিন রাফিয়ার নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মনির হোসেন ভূঁইয়া। পরে গত ২৮ আগস্ট শিশুটির এপেন্ডিসাইডসের সমস্যা শনাক্ত হয়। কিন্তু ডা. মনির হোসেন ভূঁইয়ার নেতৃত্বে শিশুটির অস্ত্রোপাচারের পরপরই অবস্থার অবনতি হতে থাকে এবং বেগতিক পরিস্থিতিতে পাশের একটি ক্লিনিকের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাকে ভর্তি করা হয়। এরপর শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করা হয় বলে জানা যায়।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫৪৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন