সর্বশেষ
শুক্রবার ২রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৬ নভেম্বর ২০১৮

'রোহিঙ্গা নারীদের সহায়তায় ৭২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজন'

বুধবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

4.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া মিয়ানমার থেকে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মহিলা ও মেয়েদের আরও সহায়তার জন্য ৭২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারসহ ১৫ শতাংশ নতুন অর্থায়নের আহবান জানিয়েছে বৈশ্বিক সংস্থা অক্সফাম।

রোহিঙ্গা সংকটের একবছর উপলক্ষে আজ অক্সফামের ঢাকা অফিস প্রকাশিত ‘ওয়ান ইয়ার অন: টাইম টু পুট উইমেন এ্যান্ড গার্লস এট দ্যা হার্ট অব দ্যা রোহিঙ্গা রেসপন্স’ শীর্ষক এক প্রতিবেদন এসব কথা বলা হয়।

বর্তমানে সার্বিক জরুরি সহায়তায় নারীদের নির্দিষ্ট প্রয়োজন মিটানোর জন্য আলাদা কোন বাজেট নাই বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। অক্সফামের কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. দীপঙ্কর দত্তের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনের পর যাতে রোহিঙ্গা নারী ও মেয়েদের প্রয়োজন যথাযথভাবে পূরণ করা যায় সেলক্ষ্যে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে প্রবেশের জন্য মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানান।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে আমরা আন্তর্জাতিক অংশীদারদেরকে তাদের প্রচারণা আরও জোরদার করার জন্য অনুরোধ করছি।’

শাহরিয়ার আলম বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি বৈষম্য দূর করার ক্ষেত্রে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে দৃঢ় রাজনৈতিক ইচ্ছা তথা দৃশ্যমান কর্মকাণ্ড প্রদর্শন করতে হবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, অক্সফামের প্রতিবেদনটি আন্তর্জাতিক দাতাদের জন্য তাদের প্রদেয় সহায়তা এবং মানবিক সহায়তাদানকারিদের জন্য পরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে একটি দিক নির্দেশনা হিসাবে কাজ করবে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই অতিরিক্ত সহায়তা পরিবার পরিকল্পনা কর্মসূচি, নারীদের সুনির্দিষ্ট স্বাস্থ্য ও পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা, পৃথক স্যানিটেশন সুবিধা জন্য ক্যাম্পগুলো স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমাতে সহায়ক হবে।


ঢাকা, বুধবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // জে এইচ এই লেখাটি ১৯৬৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন