সর্বশেষ
রবিবার ১৩ই মাঘ ১৪২৬ | ২৬ জানুয়ারি ২০২০

পাবনায় বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নেতা নিহত

সোমবার, অক্টোবর ১, ২০১৮

7.jpg
পাবনা প্রতিনিধি :

পাবনায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থি নেতা আবুল হোসেন ওরফে আবু নকশাল (৫৫) নিহত হয়েছেন।

আজ সোমবার ভোররাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার ধোপাঘাটা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত আবু নকশাল সদর উপজেলার পূর্ব রাঘবপুর গ্রামের মৃত গোলাম উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশের দাবি, নিহত আবুল নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি সংগঠন পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টি এমএল লাল পতাকার পাবনা জেলা কমান্ডার। তার বিরুদ্ধে হত্যা ও বিস্ফোরকসহ ৯টি মামলা রয়েছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, গত ৩০ সেপ্টেম্বর আবুল হোসেন ওরফে আবুলকে পূর্ব রাঘবপুর থেকে গ্রেপ্তার করে সদর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানায়, তার সহযোগীদের কাছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাবারুদ মজুদ রয়েছে। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধারের জন্য সোমবার রাত ৩টার দিকে তাকে নিয়ে অভিযানে বের হয় পুলিশ।

পুলিশের আভিযানিক দল সদর উপজেলার ধোপাঘাটা বড় ব্রিজের দক্ষিণ পাশে পৌঁছামাত্র আবুলকে ছিনিয়ে নিতে তার সহযোগীরা অতর্কিত পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এর মাঝে আবুল ওরফে আবু কৌশলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

এক পর্যায়ে দুষ্কৃতিকারীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আবুলকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে ৪টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস আরো জানান, এ ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তারা হলেন- এএসআই শহিদুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, কনস্টেবল সাইদুর রহমান ও আব্দুল জলিল। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি রিভালবার, চার রাউন্ড ২২ বোরের গুলি, ছয় রাউন্ড তাজা কার্তুজ, চার রাউন্ড কার্তুজের খোসা।


ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ১, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৯৩৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন