সর্বশেষ
সোমবার ২রা পৌষ ১৪২৬ | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

'যদি গায়ে হাত তুলতাম, তাহলে বাঁচতই না'

মঙ্গলবার, অক্টোবর ৯, ২০১৮

aishwarya-salman.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বহুদিন আগের কথা, ঐশ্বরিয়া রাই আর সালমান খান তখন চুটিয়ে প্রেম করছিলেন। কিন্তু সেই প্রেম শেষ পর্যন্ত টেকেনি। সম্পর্ক ভাঙার পর ঐশ্বরিয়া সালমানের বিরুদ্ধে গায়ে হাত তোলার অভিযোগ করেছিলেন। সেই সময়ে দেয়া সালমানের একটি সাক্ষাতকার নতুন করে ভাইরাল হয়েছে। তার কারণ হলো বলিউডের ‘মি টু’ মুভমেন্ট।

২০০২ সালের ওই সাক্ষাতকারে ঐশ্বরিয়া রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছিলেন। ঐশ্বরিয়া জানিয়েছিলেন, সালমান খান তার গায়ে প্রায়ই হাত তুলতেন। রেগে গেলে ফোন করে মুখে যা আসে, তাই বলতেন সালমান। এতকিছুর পরও কোনো রাগ ছাড়া, কিছুই হয়নি এমন ভাব নিয়ে শুটিং এ যেতেন ঐশ্বরিয়া। আর এ কারণেই তিনি সম্পর্ক ভেঙেছেন বলে জানিয়েছিলেন।

ঐশ্বরিয়ার ওই দাবির প্রেক্ষিতে একটি সাক্ষাতকারে সালমান খানকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি কোনো নারীর গায়ে হাত তুলেছেন কিনা? সালমান উত্তরে বলেছিলেন, ‘আমাকে এক সাংবাদিক এই প্রশ্ন আগেও করেছিলেন। তখন আমি সামনে থাকা টেবিলটিকে হাত দিয়ে আঘাত করি। টেবিলটি ভেঙে যায়। অর্থাৎ, আমি যদি কারো গায়ে হাত তুলি, তাহলে অবশ্যই রেগে গিয়ে তুলি। সমস্ত শক্তি দিয়েই আঘাত করি। আমার মনে হয় না, এতে সেই নারীর বেঁচে থাকার কথা।’

পুরো বলিউড এখন যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে সোচ্চার। একে একে অভিযুক্ত হচ্ছেন অনেক নামী তারকা, প্রযোজক, পরিচালক। আর এর মাঝে সালমানের পুরানো সাক্ষাতকারের ভিডিও হঠাৎ করেই সামাজিক মাধ্যম টুইটারে ভাইরাল হলো।

তবে ঐশ্বরিয়ার গায়ে হাত তোলার বিষয়ে সালমানের এমন মন্তব্য নিয়ে তাই অনেকেই সমালোচনা করছেন এবং নারীর জন্য অবমাননাকর মনে করছেন। সূত্র: পিঙ্ক ভিলা


ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৮৩০৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন