সর্বশেষ
শুক্রবার ৪ঠা শ্রাবণ ১৪২৬ | ১৯ জুলাই ২০১৯

অভিনেত্রীদের অস্বস্তির কারণেই চুমুর দৃশ্য বন্ধ করেছি: ইমরান

শুক্রবার, অক্টোবর ১২, ২০১৮

ইমরান-হাশমি.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রুপালি পর্দায় অভিনেতা ইমরান হাশমির ঘনিষ্ঠ দৃশ্য নিয়ে আলোচনা কম হয়নি একসময়। ‘সিরিয়াল কিসার’ বলেও ডাকা হতো  এ অভিনেতাকে। এবার মি টু বিতর্কে মুখ খুললেন বলিউড অভিনেতা ইমরান হাশমি।

নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘ইমরান হাশমি ফিল্মস’-এ কাজের ক্ষেত্রে যৌন হেনস্তা নিয়ে কঠোর নির্দেশিকা থাকার কথাও বলেছেন ইমরান। কাজে কোনোরকম অশালীন আচরণ বরদাশত করবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। বলেছেন, কর্মক্ষেত্রে নারী বিষয়ে ২০১৩ সালের আইনটির উল্লেখ থাকবে চুক্তিপত্রে।

গত মাসে অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেন, ১০ বছর আগে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির একটি আইটেম গানের শুটিং চলাকালে বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকার তাঁকে যৌন হেনস্তা করেন। এর পরই বলিউডে মি টু আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে। তনুশ্রী পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রীর বিরুদ্ধেও যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনেন।

এ ছবিতে তনুশ্রীর সহ-অভিনেতা ছিলেন ইমরান হাশমি। এছাড়াও ‘আশিক বানায়া আপনে’ ছবিতে দুজনে একসঙ্গে কাজ করেছেন। ছিল বেশ কিছু খোলামেলা দৃশ্যও।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ের প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, ‘চুম্বন বা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় থাকলে পরিচালক ও অভিনেত্রীর সঙ্গে কথা বলেই সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কারো আপত্তি থাকলে তা বাদ দিয়ে দেওয়া হয়।’

ইমরান বলেন, ‘অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ক্ষেত্রে আমি সাধারণত পরিচালকের সঙ্গে সহ-অভিনেতাদের সংযোগ করিয়ে দিই, যাতে স্বচ্ছতা ও স্বস্তি বজায় থাকে। এমনও সময় গেছে, যখন সহ-অভিনেতারা তাঁদের অস্বস্তি জানিয়েছেন, তখন আমরা চুমু বা অন্তরঙ্গ দৃশ্য বা অস্বস্তিকর নাচ বন্ধ করে দিয়েছি।’

ইমরান হাশমির মতে, ‘পুরুষদের আরো বেশি সংবেদনশীল হওয়া প্রয়োজন। নারীদের প্রতিবাদের জন্য প্ল্যাটফর্মটা শক্তিশালী হওয়া প্রয়োজন। পাশাপাশি থেকে পরস্পরের সম্মতিতেই কাজ করতে হবে।’

সূত্র : ডিএনএ


ঢাকা, শুক্রবার, অক্টোবর ১২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১৭৩২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন