সর্বশেষ
সোমবার ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৯ নভেম্বর ২০১৮

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মায় মা ইলিশ শিকার

বুধবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৮

14.jpg
শরীয়তপুর প্রতিনিধি :

শরীয়তপুরে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মা নদীতে মা ইলিশ শিকার করার দায়ে ১০ দিনে ৪ শতাধিক জেলেকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় জেলেদের কাছে ১৫ লাখ মিটার কারেন্ট জাল ৬.৬৩৯ মেট্রিক টন ইলিশ, ১০টি সিবোর্ড ও ১২টি ট্রলার জব্দ করা হয়েছে।

আটককৃতদের মধ্যে ৩৩৮ জনকে জেল জরিমানা করা হয়েছে। বাকিদের বয়স কম থাকার কারণে ছেড়ে দিয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা। আটককৃত জেলেদেরকে ৩ লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জব্দকৃত কারেন্ট জাল পুড়ে ধ্বংস করা হয়েছে। জব্দকৃত মাছ এতিম খানা ও মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়েছে।

অভিযানকালে পুলিশ, র‌্যাব ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ,নৌপুলিশ যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নদীতে অভিযান করার পরও থেমে নেই জেলেরা। একটু ফাঁক পেলেই তারা জাল নিয়ে নদীতে নেমে মা ইলিশ শিকার করছে। তারা কোন আইন কানুন মানছে না। জেল জরিমানাও ভয় পায়না।

প্রতিদিন জেলেরা কমপক্ষে ১০ মেট্রিক টন মা ইলিশ নিধন করছে। দুলার চর এলাকার ছানা উল্লা বলেন, প্রতিদিন শত শত জেলে কারেন্ট জাল দিয়ে মা ইলিশ শিকার করে পানির দরে (১০০ টাকা কেজি ) দরে বিক্রি করছে। পুলিশ এসে হঠাৎ মাছ আটক দিয়ে নিজেরা নিয়ে যায়। আর কেউ কিনে থাকলে তার থেকে কিছু টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয় । প্রশাসনের লোকজন আন্তরিক না হলে মাছ ধরা বন্ধ করা যাবেনা।

এ ব্যাপারে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ বৈরাগী বলেন, আটককৃত জেলেদের মধ্যে বয়স কম থাকায় কিছু জেলেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। ৩৩৮জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জেল জরিমানা করা হয়েছে।


ঢাকা, বুধবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১২৩২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন