সর্বশেষ
রবিবার ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৮ নভেম্বর ২০১৮

রাজধানীতে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা বাইকার গ্যাংস্টার গ্রুপের ৮ সদস্য আটক

সোমবার, নভেম্বর ৫, ২০১৮

45469931_10217781521309306_2242578312742305792_n-750x430.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রাজধানীর খিলগাঁও-শাহজাহানপুর এলাকায় উদীয়মান “বাইকার গ্যাংস্টার” গ্রুপের ৮ সক্রিয় সদস্যকে আটক করছে এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান।

রোববার রাতে খিলগাঁও তালতলার একটি বিকাশ এজেন্টর দোকানে বাইকার গ্যাংস্টার গ্রুপের সদস্যরা ৫০ হাজার টাকা দাবি করে, টাকা না পেয়ে ওই দোকানে তারা গুলি ও ভাংচুর করে। ওই সময় খবর পেয়ে এলাকায় টহলরত র‌্যাব-৩ এর একটি দল এলাকাবাসীর সহায়তায় ৫ জনকে আটক করে। পরে আটকদের তথ্য অনুযায়ী রাতেই শাহজাদপুর থেকে আরো ৩ জনকে আটক করে র‌্যাব।

আটকরা হলেন- মো. মেহেদী হাসান (২২), মো. শাহরিয়ার (২২), কাজী ইউসুফ বিন শওকাত ওরফে অনিক (১৯), মোঃ আমিনুল ইসলাম ওরফে আমিন (২০ ), মো. আবু হুরায়রা আদিব (১৮), মো. সাব্বির হোসেন(১৮), মো. শিশির আহম্মেদ ওরফে সজল (২২), মো. মাজহারুল ইসলাম ওরফে অনিক ইসলাম (২১)।

ওই সময় তিনটি গুলির খোসা, একটি প্রজেক্টাইল, একটি ডামি পিস্তল ও পাঁচটি মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব ৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্টাফ অফিসার (অপস) বীনা রাণী দাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

তিনি জানান, গ্যাং কালচারের নামে দিন দিন ভয়ংকর হয়ে উঠেছে রাজধানীর খিলগাঁও তালতলা এবং শাহজাহানপুর এলাকার কিশোরদের একটা অংশ। এসব কিশোররা মূলত পার্টি করা, হর্ন বাজিয়ে প্রচণ্ড গতিতে মোটরসাইকেল চালানো ও রাস্তায় মেয়েদের উত্যক্ত করত। গ্রুপটির সকল সদস্যই তরুণ এবং বয়স ১৭-২৪ বছরের মধ্যে।

এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, হিরোইজম ও থ্রিল থেকে এসব কিশোররা ছিনতাই, মাদক বাণিজ্য, মাদক বহন, মাদক সরবরাহকারী, মাস্তানি, দাদাগিরি, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত হয়ে পড়ে এই কিশোর গ্যাং।

র‌্যাব জানায়, রাব্বি ওরফে পাঠা রাব্বি ও অদিতের নেতৃত্বে গড়ে ওঠা বাইক গ্যাংস্টার গ্রুপ “রোড রাইডার্স”, “ক্রাস বিডি” ইত্যাদি নাম পরিচয়ে তারা এলাকায় প্রায় এক বছর যাবত ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল।

“ক্রাশবিডি” গ্রুপ বাইক স্ট্যান্টের নাম করে দলে সদস্য জোগাড় করে এবং পরে ৩০-৪০ জনের বিশাল বাহিনী নিয়ে শোডাউনের নামে ছিনতাই, দস্যুতা, চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধ করে।

এই গ্রুপটি পুরান ঢাকার “বার্ন রাইডারস” গ্রুপের সাথে মোটরসাইকেল শোডাউন করে পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যক্রমের মাধ্যমে ত্রাস সৃষ্টি করত।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও জানা যায় যে তারা খিলগাঁও, সবুজবাগ, শাহজাহানপুর ও পুরান ঢাকার খান রাসেল গ্রুপ, শাহজাহানপুরের ইমন গ্রুপ, গোড়ানের হাওয়াই গলির মুজিবুর রহমান রানা, গোড়ান ঝিলপাড়ের ছিনতাইকারী মেহেদী গ্রুপ এবং পুরান ঢাকার বিভিন্ন গ্রুপের সাথে জড়িত।

আটকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান র‌্যাবের এ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

সূত্র: চ্যানেল আই অনলাইন


ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ৫, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১২১৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন