সর্বশেষ
বুধবার ২৮শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল কর্মসূচি পালন

শুক্রবার, নভেম্বর ৯, ২০১৮

8.jpg
প্রবাসী ডেস্ক :

মালদ্বীপস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার জন্য সর্বদা সচেষ্ট। এ উপলক্ষে ইতোমধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার অংশ হিসেবে গত ৮ নভেম্বর ২০১৮ তারিখ রাজধানী মালেতে অবস্থিত স্বনামধন্য আহমেদিয়া ইন্টান্যাশনাল স্কুলকে শিক্ষা সহায়তা হিসেবে কম্পিউটার সামগ্রী ও পুস্তক হস্তান্তর করা হয়।

মালদ্বীপের শিক্ষিত জনগণ এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়নের চিত্র বিশেষ করে অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন তুলে ধরতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন কর হয়। অনুষ্ঠানে দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা/ কর্মচারীবৃন্দ এবং আহমেদিয়া স্কুলের শিক্ষকমণ্ডলী এবং ৫০০ এর অধিক ছাত্র-ছাত্রীরা ও তাদের অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত রিয়ার এডমিরাল আখতার হাবীব।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও তর্জমা এবং উক্ত স্কুলের নিজস্ব সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। পরবর্তীতে দু'দেশের জাতীয় সঙ্গীত পর্যায়ক্রমে পরিবেশন করা হয়। উক্ত স্কুলের পক্ষ থেকে একজন সিনিয়র শিক্ষিকার বক্তব্য প্রদানের পর স্কুলের অধ্যক্ষ জনাব মোহাম্মদ রাশেদ এর হাতে মান্যবর রাষ্ট্রদূত শিক্ষা সহায়তা  হিসেবে উপহার সামগ্রী হিসেবে একটি ডেস্কটপ কম্পিউটার, একটি ল্যাপটপ এবং বাংলাদেশের ইতিহাস ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কিছু পুস্তক আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন।

আহমেদিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অধ্যক্ষ তার বক্তব্যে বাংলাদেশ দূতাবাসের ভূয়সী প্রশংসা করেন বিশেষ করে উপহার সামগ্রীর জন্য মান্যবর রাষ্টদূতকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি তার বক্তব্যে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আরো বলেন যে, 'উক্ত অনুষ্ঠানটি আহমেদিয়া ইন্টান্যাশনাল স্কুলের জন্য একটি স্মরণীয় দিন হয়ে থাকবে।'

তিনি বলেন, 'ভবিষ্যতে বাংলাদেশ দূতাবাস এবং আহমেদিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক দৃঢ়তর হবে এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করে তার বক্তব্য শেষ করেন।'

পরবর্তীতে মান্যবর রাষ্ট্রদূত রিয়ার এডমিরাল আখতার হাবীব তার মূল্যবান বক্তব্যে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও অগ্রগতি এবং বাংলাদেশী কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নত মানের উপর আলোকপাত করেন। মান্যবর রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি, মালদ্বীপ এবং বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশী সশস্ত্র বাহিনীর অবদান তুলে ধরেন।

মান্যবর রাষ্ট্রদূত এর বক্তব্যের পর বাংলাদেশের চলমান অর্থনৈতিক উন্নতি ও অগ্রগতি এবং বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন কার্যক্রম ভিত্তিক একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। উপস্থিত সকলেই প্রামাণ্য চিত্রটির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

স্কুলের পক্ষে ভোট অফ থ্যাংকস প্রদান করে স্কুলের শিক্ষার্থী মিস আয়শাত জোহা শাহ্ । বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক আহমেদিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলটি এ মূল্যবান সহায়তা দিয়ে উৎসাহিত করার জন্য তিনি গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি উজ্জ্বলকরণে দূতাবাসের এ ধরনের ইতিবাচক কর্মকাণ্ড সর্বসাধারণের নিকট প্রশংসিত হয়।

আল মামুন, মালদ্বীপ থেকে।

 


ঢাকা, শুক্রবার, নভেম্বর ৯, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২৬৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন