সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৪ঠা আষাঢ় ১৪২৬ | ১৮ জুন ২০১৯

চাঁদা না দেয়ায় চালককে মারধর, বরখাস্ত হলেন এসআই

শনিবার, নভেম্বর ১০, ২০১৮

tangail-trak-driver-20181110132511.jpg
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব পাড়ে পুলিশকে চাঁদা না দেয়ায় বকুল নামের এক ট্রাক চালককে নির্মম আঘাত করা হয়। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ক্ষুব্ধ ট্রাক ও বাস শ্রমিকরা সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত তিন ঘন্টা সেতু সড়ক অবরোধ করে রাখে। শনিবার সকাল সাড়ে ৫টার দিকে মূলত এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। সেতুর উভয় পাড়ে সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজটের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও শ্রমিক সংগঠনের নেতারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে ওই পুলিশ সদস্যের সাময়িক বরখাস্ত ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকরা। সকাল ১০টার দিকে যান চলাচল স্বাভাবিক হলেও দীর্ঘ গাড়ীর সারির কারণে ধীরগতিতে চলছে যানবাহন।

সরেজমিনে জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব পাড়ে থানার এসআই নুরে আলমের নেতৃত্বে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে একদল পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছিলো। এ সময় নুরে আলম বকুল নামের এক ট্রাক চালকের কাছে ৫০০ টাকা চাঁদা দাবী করে। কিন্তু সে তা দিতে অস্বীকার করায় এসআই নুরে আলম তাকে নির্মমভাবে আঘাত করে। এতে তার চোখের নীচে ফেটে রক্তক্ষরণ হয়। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ক্ষুব্ধ ট্রাক ও বাস শ্রমিকরা সকাল ৬টা থেকে ১০টা পর্যন্ত চার ঘন্টা সেতু সড়ক অবরোধ করে রাখে। শনিবার সকাল সাড়ে ৫টার দিকে মূলত এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। সেতুর উভয় পাড়ে সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজটের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শরীফুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান মিঞা, কালিহাতী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদুর রহমান মনিসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও টাঙ্গাইল জেলা শ্রমিক সংগঠনের সাধারন সম্পাদক বালা মিঞাসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও শ্রমিক সংগঠনের নেতারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে ওই পুলিশ সদস্যের সাময়িক বরখাস্ত ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকরা। এ দিকে সকাল ১০টার  দিকে যান চলাচল শুরু হলেও দীর্ঘ গাড়ীর সারির কারণে ধীরগতিতে চলছে যানবাহন।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান মিঞা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওই পুলিশ সদস্যকে তাৎক্ষণিক সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে তাকে চূড়ান্ত ভাবে বরখাস্ত করা হবে। ওই ট্রাক চালকের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করার ঘোষণা দিয়ে তিনি আরো বলেন, টাঙ্গাইল জেলার সীমানায় কোন পুলিশ সদস্য আর কখনোই চাঁদাবাজীর নামে হয়রানী করবেনা। এরপরেও যদি কোন সদস্য এমন ঘটনা ঘটায় তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মুুক্তার হাসান, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি


ঢাকা, শনিবার, নভেম্বর ১০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৭৯৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন