সর্বশেষ
বুধবার ৬ই ভাদ্র ১৪২৬ | ২১ আগস্ট ২০১৯

টাঙ্গাইলে একই পরিবারের ৫জনসহ ৮২জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

বুধবার, নভেম্বর ২৮, ২০১৮

Election-Commission-Motif_0.jpg
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টাঙ্গাইলের আটটি আসনে আওয়ামী লীগের ৯জন, বিএনপির ১৫জন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের ৯জন, জাতীয় পার্টির ৫জন, ইসলামী আন্দোলনের ৮জন, স্বতন্ত্র ৯জনসহ অন্যান্য দলের মোট ৮২ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ দিনে বুধবার (২৮ নভেম্বর) সকাল থেকে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, কৃষক শ্রমিক জনতালীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলামের কার্য়ালয়সহ নিজ এলাকায় সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ি): এ আসনে ৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- ড. আব্দুর রাজ্জাক (আওয়ামী লীগ), ফকির মাহবুব আনাম স্বপন ও সরকার শহীদ (বিএনপি), আশরাফ আলী (ইসলামী আন্দোলন), সালামত হোসাইন খান (জাকের পার্টি), আবু মিল্লাত হোসেন (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), ফারুক আহমেদ (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), খন্দকার আনোয়ারুল হক (স্বতন্ত্র)।

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর): এ আসনে ৯ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- তানভীর হাসান ছোট মনির ও খন্দকার মশিউজ্জামান রোমেল (আওয়ামী লীগ), সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও শামছুল আলম তোফা (বিএনপি), এনামুল হক মঞ্জু (জাকের পার্টি), জাহিদ হোসেন খান (কমিউনিষ্ট পার্টি), রফিকুল ইসলাম (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), এসএম শামসুর রহমান (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), মনিরুল ইসলাম (বিকল্প ধারা)।

টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল): এ আসনে ৯ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- আতাউর রহমান খান (আওয়ামী লীগ), লুৎফর রহমান খান আজাদ ও মাঈনুল ইসলাম (বিএনপি), আব্দুর রশিদ (কৃষক শ্রমিক জনতালীগ), মাওলানা রেজাউল করিম (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), আবু হানিফ (বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন), আতাউর রহমান খান বড় ভাই (বিএনএফ), খলিলুর রহমান (জাকের পার্টি), এসএম চাঁন মিয়া (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি)।

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী): এ আসনে ১৫ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী (আওয়ামী লীগ), লুৎফর রহমান মতিন, ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল হালিম, বেনজীর আহমেদ (বিএনপি), বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী,

শামীম আল মনসুর আজাদ সিদ্দিকী, ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলী (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), মোস্তাক হোসেন রতন (জাতীয় পার্টি), সাদেক সিদ্দিকী (জাতীয় পার্টি-জেপি), মির্জা আবু সাঈদ (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), এসএম আবু মোস্তফা (জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল), মোন্তাজ উদ্দিন (বাংলাদেশ জাকের পার্টি), সাবেক এমপি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, আবুল কাশেম ও বাকির হোসেন (স্বতন্ত্র)।

টাঙ্গাইল-৫ (টাঙ্গাইল সদর): এ আসনে ১১ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- বর্তমান এমপি আলহাজ ছানোয়ার হোসেন (আওয়ামী লীগ), মেজর জেনারেল (অব.) মাহমুদুল হাসান ও ছাইদুল হক ছাদু (বিএনপি), মুরাদ সিদ্দিকী, আবুল কাশেম (স্বতন্ত্র), পীরজাদা শফিউল্লাহ আল মুনির (জাতীয় পার্টি), খন্দকার সানোয়ার হোসেন (ইসলামী আন্দোলন), সৈয়দ খালেকুজ্জামান মোস্তফা (বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশ), হাবিবুর রহমান খোকা বীরপ্রতিক (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), আবু তাহের (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), শামীম আল মামুন (বিএনএফ)।

টাঙ্গাইল-৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার): এ আসনে ১১ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- আহসানুল ইসলাম টিটু (আওয়ামী লীগ), অ্যাডভোকেট গৌতম চক্রবর্তী ও নুর মোহাম্মদ খান (বিএনপি), আখিনুর মিয়া (ইসলামী আন্দোলন), এম আশরাফুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), আনোয়ার হোসেন (বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন), সুলতান মাহমুদ (বিএনএফ), মাসুকুল হক মুরাদ (ওয়ার্কার্স পার্টি), সৈয়দ নাভেদ হোসেন (জাসদ), মামুনুর রহমান (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), রবিউল আওয়াল (জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল)।

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর): এ আসনে ৯ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- বর্তমান এমপি একাব্বর হোসেন (আওয়ামী লীগ), সাবেক এমপি কারাবন্দি আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী ও সাঈদ সোহরাব (বিএনপি), সৈয়দ মজিবুর রহমান (খেলাফত মজলিশ), রুপা রায় চৌধুরী (প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল), জহিরুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি), গোলাম নওজব পাওয়ার চৌধুরী (ওয়ার্কার্স পার্টি), লিপি বেগম (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), শাহিনুর ইসলাম (ইসলামী আন্দোলন)।

টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর): এ আসনে ১০ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন- জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের (আওয়ামী লীগ), বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, কুঁড়ি সিদ্দিকী, হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা (কৃষক শ্রমিক জনতালীগ), কাজী আশরাফ সিদ্দিকী, রেজাউল করিম (জাতীয় পার্টি), মাওলানা আব্দুল লতিফ মিয়া (ইসলামী আন্দোলন), লিয়াকত আলী, শহিদুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), শফি সরকার (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি)।

মুক্তার হাসান, টাঙ্গাইল থেকে


ঢাকা, বুধবার, নভেম্বর ২৮, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৭১৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন