সর্বশেষ
সোমবার ২৯শে আশ্বিন ১৪২৬ | ১৪ অক্টোবর ২০১৯

জেএসসি পরীক্ষার্থীকে হত্যার পর লাশ পুঁতে ফেলল বন্ধুরা

শুক্রবার, নভেম্বর ৩০, ২০১৮

pabna-samakal-5c00e06d5bcc1.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

পাবনা সদর উপজেলার দুবলিয়া গ্রামের মো. রবিউল ইসলাম প্রামানিকের মেজ ছেলে আশিক মাহমুদ অনি বাবু (১৪)। সে এবার জেএসসি পরীক্ষা শেষ করেছে। অনি দু'টি অ্যানড্রয়েট মোবাইল ফোন ব্যবহার করতো, যার প্রতি বন্ধুদের লোভ ছিল। কয়েক দিন আগে তার জমানো সাড়ে চার হাজার টাকা হারিয়ে যায়। এসব নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এর জের ধরে অনিকে হত্যার পর লাশ পুঁতে রাখা হয়।

পাবনা সদর থানার দুবলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মনোরঞ্জন রায় এসব তথ্য জানান। শুক্রবার সকালে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মনোরঞ্জন রায় বলেন, এসব ছাড়াও প্রেমঘটিত বিষয় থাকতে পারে। তবে এ ঘটনা ঘটেছে তার বন্ধুদের দ্বারা। ঘটনার পর থেকে তারা সবাই পলাতক রয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অনির খুনীদের খুঁজে বের করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এলাকার লোকজন বলছে, 'মোবাইল ফোনই অনির জীবনের কাল হলো।'

পুলিশ জানায়, গত ২৬ নভেম্বর অনি বাবু দুবলিয়া বাজার থেকে নিখোঁজ হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় সে বাবার টিনের দোকানে যায়। এ সময় বাবা রবিউল প্রামানিক তাকে বাড়ি যেতে বলে। সে দোকান থেকে বেরিয়ে আর বাড়ি ফেরেনি। অনেক খোজাখুঁজির পরেও অনিকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে অনির বাবা রবিউল ইসলাম গত ২৭ নভেম্বর পাবনার আতাইকুলা থানায় একটি জিডি করেন। এদিকে শুক্রবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে দুবলিয়া হাইস্কুলের দক্ষিণ পাশের একটি হলুদ ক্ষেতে শ্রমিকরা কাজ করার সময় কোদালের কোপে একটি হাত বেরিয়ে আসে। এভাবে লাশটি উদ্ধারের পর অনির পরিবারের সদস্যরা এসে সেটি শনাক্ত করেন। সূত্র: সমকাল


ঢাকা, শুক্রবার, নভেম্বর ৩০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ২১৯১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন