সর্বশেষ
বুধবার ২৭শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

'নির্বাচন কমিশন একটি আস্থার ভোট চায়'

সোমবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮

uuu_0.JPG
বিডিলাইভ ডেস্ক :

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ভোট সুষ্ঠু করতে জাতির কাছে দায়বদ্ধ নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আমরা কোনো প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন করতে চাই না। নির্বাচন কমিশন একটি আস্থার ভোট চায়।

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) সকালে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের সঙ্গে নির্বাচনী নির্দেশনামূলক এক কর্মশালায় তিনি এ সব কথা বলেন।

সিইসি ম্যাজিস্ট্রেটদের নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে বলেন, ‘প্রজ্ঞা ও মেধা খাটিয়ে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করতে হবে।’

সিইসি বলেন, আমরা এমন একটি ভোট করতে চাই যেন কোনো রাজনৈতিক দল এ বিষয়ে প্রশ্ন করতে না পারে।

ম্যাজিস্ট্রেটদেরকে প্রশ্নের ঊর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালনে আহবান জানিয়ে সিইসি বলেন, আপনারা সংবিধান ও আইনের ভিত্তিতে দায়িত্ব পালন করবেন।

ভোটের প্রচার শুরু হয়ে যাচ্ছে জানিয়ে সিইসি বলেন, মূলত আজ থেকেই নির্বাচনী ডামাঢোল শুরু হয়ে গেল। বাকিটা মাঠে আপনাদের দায়িত্ব। আপনি স্বাধীন, আপনি নিরপেক্ষ, আপনি জাস্টিস, বিচারকের মাইন্ড আপনাকে অ্যাপ্লাই করতে হবে।

নুরুল হুদা আরও বলেন, ‘ছয়শ’র বেশি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভোটের আগে পরে চারদিন (২৯ ডিসেম্বর থেকে ১ জানুয়ারি) মাঠে থাকবেন। বৈষম্যের ঊর্ধ্বে থেকে রাগ অনুরাগ প্রশ্রয় না দিয়ে আপনারা প্রজ্ঞা ও মেধা খাটিয়ে ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখুন।

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের তিন দিনব্যাপী ব্রিফিং অনুষ্ঠানের প্রথমধাপে আজ ২১৫ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অংশ নেন। তিন ধাপে মোট ৬৪০ জন জুডিশয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে ব্রিফ করবে কমিশন। ভোটগ্রহণের আগের দিন, ভোটগ্রহণের দিন এবং ভোটগ্রহণের পরের দুইদিন নির্বাচনের মাঠে নিয়োজিত থাকবেন এরা।


ঢাকা, সোমবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৪৬১৫৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন