সর্বশেষ
বুধবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৬ | ১৩ নভেম্বর ২০১৯

নকল ঠেকাতে শিক্ষার্থীদের মাথায় কার্ডবোর্ডের বাক্স

রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯

Copy.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে, কর্ণাটকের ভাগথ পিইউ কলেজ শিক্ষার্থীদের মধ্য নকলের প্রবণতা নিয়ে চিন্তিত ছিল কলেজ কর্তৃপক্ষ। হাজার চেষ্টা করেও তারা নকল করার প্রবণতা রুখতে পারছিলেন না। তাই এবার কার্যত বাধ্য হয়েই এমন আজব পদ্ধতি বেছে নিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, কর্ণাটকের ভাগথ পিইউ কলেজে প্রথম বর্ষের রসায়ন বিষয়ের পরীক্ষা ছিল ওইদিন। পরীক্ষার্থীরা হলে এসে জানতে পারেন তাদের এবার মাথায় কাগজের বাক্স পরে পরীক্ষা দিতে হবে। যা শুনে প্রথমে চমকে উঠেছিলেন ছাত্র-ছাত্রীরা। চোখের কাছে দুটি ফুটো করে দেওয়া হয়েছিল প্রতিটি বাক্সে। ছাত্র-ছাত্রীরাও কলেজের নির্দেশ মেনে নেয়। তবে এমন ঘটনা এদেশে এর আগে কোথাও কখনও শোনা যায়নি।

বুধবার ভগত পিইউ কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের রসায়ন মিডটার্ম পরীক্ষায় নকল ঠেকাতে এ অভিনব পদ্ধতি ব্যবহারের ছবি, ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাইরাল হয়ে যায় বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে।

ছবিতে সব পরীক্ষার্থীকে কার্ডবোর্ডের বাক্স পরেই পরীক্ষা দিতে দেখা যাচ্ছে। বাক্সগুলোর যে অংশ শিক্ষার্থীদের মুখের দিকে ছিল, কেবল সেদিকেই সামান্য ছিদ্র করা ছিল।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এ ধরনের ‘অমানবিক আচরণের’ কারণ দর্শাতে কলেজটির ব্যবস্থাপনা কমিটিকে নোটিশ দিয়েছে রাজ্যটির প্রি-ইউনিভার্সিটি এডুকেশন বোর্ড ; দায়ীদের শাস্তি দেওয়া হবে বলেও আশ্বস্ত করেছে তারা।

গত মাসে মেক্সিকোর একটি কলেজের এক শিক্ষকও শিক্ষার্থীদের মাথায় জোর করে বাক্স চাপিয়ে দিয়েছিলেন। অভিভাবকরা কলেজিও দে বেচিলেরস দেল এস্তাদো দে ত্লাক্সকালার ওই শিক্ষককে বরখাস্তেরও দাবি জানিয়েছিলেন।

এর আগে শিক্ষার্থীদের নকল ঠেকাতে অভিনব একটি পদ্ধতি ব্যবহার করে আলোচিত হয়েছিল থাইল্যান্ডের ব্যাংককের ক্যাসেটসার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ও। নকল ঠেকাতে প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষার্থীদের চোখের দুই পাশে কাপড়ের ঢাকনা ব্যবহার করেছিল। সেই ঘটনাও বিশ্বে বেশ আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল।

সূত্র : এনডিটিভি, এবিপি নিউজ


ঢাকা, রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ৩৬৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন