সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৩০শে কার্তিক ১৪২৬ | ১৪ নভেম্বর ২০১৯

বিদ্যুৎ থেকে আগুনেই সব শেষ

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

9.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

ফুটফুটে দুই শিশু সন্তান আশরাফুল ও উনিয়াকে নিয়ে সাজানো সংসার ছিল আমির হোসেন ও খালেদা আক্তারের। রাতে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তারা। তবে শর্ট সার্কিট থেকে হঠাৎ অগ্নিকাণ্ডে চারজনই অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। মৃতরা সবাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নে গৌড়নগর গ্রামের বাসিন্দা।

১৯ অক্টোবর রাত ১২টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ওই বাসায় আগুন লাগে। ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটায় আমির হোসেন, তার স্ত্রী খালেদা আক্তার, ছেলে আশরাফুল, মেয়ে উনিয়া গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসক ছেলে আশরাফুলকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে পাঠান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৩ অক্টোবর সকাল ১০টায় আমির হোসেন, রাত ১১টায় মেয়ে উনিয়া মারা যান। সবশেষ ২৩ অক্টোবর রাত ২টায় স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা খালেদা আক্তার মারা যান।

মৃত আমির হোসেনের ভাই জামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৃতদের মধ্যে ছেলে আশরাফুলের মরদেহ বেশি ক্ষত হওয়ায় চট্টগ্রামেই তাকে দাফন করা হয়েছে। বাকিদের গৌড়নগর গ্রামের ঈদগাহ মাঠে জানাজা শেষে কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নবীনগরের গৌড়নগর গ্রামের আবুল খায়েরের ছেলে আমির হোসেন চট্টগ্রামে মাছের ব্যবসা করতেন। তিনি সপরিবারে চট্টগ্রামের ডবলমুড়িং থানার মৌলভীপাড়ায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৪০৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন