সর্বশেষ
রবিবার ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১৭ নভেম্বর ২০১৯

"এটি সহ্য করা যায় না” -রাহাতের মৃত্যুর ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৯

pm-4.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কিশোর আলোর অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে স্কুলছাত্র নাঈমুল আবরার রাহাতের মৃত্যুর ঘটনায় আয়োজকদের অবহেলাকে দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী গত শুক্রবার ঢাকার রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজে প্রথম আলো আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আয়োজকদের অবহেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঢাকা রেজিডেন্সিয়াল স্কুল ও কলেজের এক ছাত্রের মৃত্যুর নিন্দা করেন।তিনি বলেন, ‘তারা (প্রথম আলো) কিভাবে এ ধরনের অবহেলা করতে পারে। স্কুল শিক্ষার্থীরা যেখানে ঘোরাফেরা করছে সেখানে এই ধরণের একটি অনুষ্ঠান আয়োজনে তাদের কোন দায়িত্বশীলতা ছিল না। এটি একটি গুরুতর অভিযোগ, এটি সহ্য করা যায় না।”

অনুষ্ঠানস্থলের আশপাশেই শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স এবং ট্রমা সেন্টারের মতো হাসপাতাল থাকা সত্ত্বেও ছাত্রটিকে মহাখালিতে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রথম আলো কতৃপক্ষের সমালোচনা করেন।

বৃহস্পতিবার অসুস্থ,অস্বচ্ছল ও দুর্ঘটনায় আহত সাংবাদিক ও নিহত সাংবাদিক পরিবারেরর সদস্যদের আর্থিক সহায়তার চেক প্রদান অনুষ্ঠানে একথা বলেন সরকার প্রধান।

তিনি প্রথম আলো কর্তৃপক্ষের সমালোচনা করে বলেন, “বোঝা উচিৎ ছিল যে ছোট ছোট বাচ্চারাও এখানে পড়াশোনা করছে। সেই দিকে তো কোনো খেয়ালই নেই। এটাও তো একটা গর্হিত অপরাধ। এভাবে একটা বাচ্চা মারা যাবে, এটা তো কখনও বরদাশত করা যায় না।”

গত শুক্রবার ঢাকার রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজে যে অনুষ্ঠানে রাহাত বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান, ওই অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিল প্রথম আলোর কিশোর সাময়িকী কিশোর আলো।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ৩২৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন