সর্বশেষ
শনিবার ৩০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহারে সতর্ক হন

রবিবার, ডিসেম্বর ১, ২০১৯

1508567215.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

আজকাল রেস্টুরেন্টে, বাসস্ট্যান্ডে এবং বিভিন্ন পাবলিক প্লেসে ফ্রি ওয়াই-ফাই পাওয়া যায়। ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহারের আগে জেনে নাও কিছু বিষয়।

ফ্রি ওয়াই-ফাই অনেক সময় ফাঁদও হতে পারে। তাই ফ্রি ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়ে কখনোই অনলাইন ব্যাংকিং, ডেবিট কিংবা ক্রেডিট কার্ড নম্বর ব্যবহার করে কোনো অনলাইন ট্র্যানজেকশন করবে না।

ভিপিএন বা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করবে। এর সাহায্যে আলাদা আইপি অ্যাড্রেসের মাধ্যমে ওয়েবসাইট ভিজিট করা যায়। ফলে ফ্রি ওয়াই-ফাইয়ের পাবলিক আইপি অ্যাড্রেস দরকার হবে না। এটা ব্যক্তিগত তথ্যকেও নিরাপদ রাখবে।

মোবাইল ডিভাইস এবং কম্পিউটার অনেক সময় তাদের সঙ্গে সংযুক্ত ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম সংরক্ষণ করে রাখে এবং পরবর্তী সময়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেগুলোর সঙ্গে যুক্ত হয়। এই কাজটি করা ঠিক না। কারণ, দুষ্কৃতকারীরা অনেক সময় ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পটের নাম নকল করে তোমার ডিভাইসের সঙ্গে অটো-কানেক্টেড হতে পারে এবং নিজস্ব এক্সেস পয়েন্টের মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্য নিয়ে নিতে পারে।

অনেক সময় জনপ্রিয় কোনো ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পটের আশপাশে দুর্বৃত্তরা কাছাকাছি নামের অন্য কোনো ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পট খুলে ফাঁদ পাতে। তাই এই ফাঁদ থেকে বাঁচতে নেটওয়ার্কে যুক্ত হওয়ার আগে এর নাম সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে।

কিছু কিছু ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পটে যুক্ত হতে হলে ফোন নম্বর দিতে হয় এবং এরপর এসএমএসের মাধ্যমে ফোনে একটি পাসওয়ার্ড/কোড আসে, যেটা দিয়ে নেটওয়ার্কে যুক্ত হতে হয়। এ রকম নেটওয়ার্ক অপেক্ষাকৃত নিরাপদ।

মোবাইল ফোনে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করতে হবে। তাহলে অনিরাপদ নেটওয়ার্কে ঢোকার আগে সেটা তোমাকে সতর্ক করবে।

ইন্টারনেট ব্যবহার না করলে ফোনের ওয়াই-ফাই বন্ধ করে রাখো। এতে ব্যাটারি চার্জ বাঁচবে। এ ছাড়া প্রতারণামূলক অটোকানেক্ট নেটওয়ার্কের হাত থেকেও রেহাই মিলবে।


ঢাকা, রবিবার, ডিসেম্বর ১, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ২৮৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন