সর্বশেষ
শনিবার ৫ই মাঘ ১৪২৬ | ১৮ জানুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশি হজযাত্রীর কোটা আরও ১০ হাজার বাড়লো

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৯

hajj_montri.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

মুসলিম জনসংখ্যার ভিত্তিতে বিভিন্ন দেশের অনুকূলে সৌদি কর্তৃপক্ষ হজ কোটা বরাদ্দ দেয়। বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ থেকে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজপালনের সুযোগ পেয়ে আসছেন।

২০২০ সালে বাংলাদেশী হজযাত্রীর কোটা আরো ১০ হাজার বাড়িয়েছে সৌদি সরকার। আগামী বছর (২০২০) মোট ১লাখ ৩৭ হাজার বাংলাদেশী হজ করার সুযোগ পাবেন।বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সৌদি আরবের মক্কায় এ-সংক্রান্ত একটি চুক্তি সই হয়।

এবারের হজ চুক্তিতে বাংলাদেশের বর্তমান মুসলিম জনসংখ্যার ভিত্তিতে অতিরিক্ত বিশ হাজার বাংলাদেশি হজযাত্রীর হজের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। সে দাবি মেনে এবার ১০ হাজার কোটা বাড়ানো হল।

বুধবার স্থানীয় সময় বিকালে মক্কায় সৌদি হজ মন্ত্রণালয়ে ২০২০ সালের হজ চুক্তি অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান বাংলাদেশের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ ও সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহমন্ত্রী সালেহ বিন তাহের বেনতেন।

চুক্তিতে আরও যেসব বিষয় রয়েছে তা হলো- রুট টু মক্কা ইনিশিয়েটিভের আওতায় শতভাগ হজযাত্রীর ইমিগ্রেশন হবে ঢাকায়, হাজিদের ভোগান্তি কমাতে মদিনায় ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়বে, বিমান বাংলাদেশ এবং সৌদি এয়ারলাইন্স ৫০ ভাগ করে হজযাত্রী পরিবহন করবে, বেসরকারি হজ এজেন্সিগুলোর সর্বনিম্ন এক শ হজযাত্রী পাঠানোর বিধান অব্যাহত থাকবে এবং হাজিদের পরিবহন সুবিধা বাড়ানো ও মিনায় উন্নত বাসস্থানের ব্যবস্থা করা।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ২০২০ সালে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে ১ আগস্ট। বাংলাদেশ থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হবে ২৫ জুন।

ইউএনবি


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ৪৬৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন