সর্বশেষ
শুক্রবার ২৩শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ০৭ আগস্ট ২০২০

রোহিঙ্গা গণহত্যার শুনানি: প্রস্তুত আন্তর্জাতিক আদালত

শুক্রবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

2_0.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে করা মামলায় বিচারকাজ শুরু করতে প্রস্তুত আন্তর্জাতিক আদালত। এরই মধ্যে আদালত সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। অপরদিকে শুনানিতে অংশ নেয়ার কথা আগেই জানিয়েছেন মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সাং সুচি। 

১৯৯৪ সালের রুয়ান্ডা গণহত্যা মামলার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে মিয়ানমারকে দোষী সাব্যস্ত করতে আশাবাদী গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী। রোহিঙ্গা নির্যাতনের অভিযোগে মিয়ানমারের সাধারণ মানুষকে যাতে শাস্তি দেয়া না হয় সে আহ্বান জানিয়েছেন ইয়াঙ্গুনের আর্চ বিশপ।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মুখ থেকে রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের বর্ণনা শুনে স্তম্ভিত হন গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী আবুবকর তাম্বাদু। সিদ্ধান্ত নেন রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করার। এরই প্রেক্ষিতে রোহিঙ্গা নির্যাতনের আনুষ্ঠানিক তদন্তে ওআইসির কাছে একটি প্রস্তাব দেন তিনি। পরবর্তীতে চলতি বছরের নভেম্বরে ওআইসির সহযোগিতায় জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করেন গাম্বিয়ার এই আইনজীবী।

গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী আবুবকর তাম্বাদু বলেন, রোহিঙ্গাদের পক্ষে কথা বলার মতো কেউ নেই, তাই আমার দায়িত্ব ও কর্তব্যের জায়গা থেকে মামলাটি করেছি। কোন জাতি যখন তাদের দুঃখ দুর্দশার কথা বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার কোন সুযোগ পায় না তখন কেমন লাগে তা আমরা বুঝতে পারি।

রোহিঙ্গা নির্যাতনের সব অভিযোগ ইতোমধ্যে অস্বীকার করেছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। হেগের আদালতে মামলা লড়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। আগামী ১০ থেকে ১২ই ডিসেম্বরের শুনানির জন্য গঠন করা হয়েছে কমিটিও।


ঢাকা, শুক্রবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ২১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন