সর্বশেষ
সোমবার ৭ই মাঘ ১৪২৬ | ২০ জানুয়ারি ২০২০

কাশ্মীরীদের অ্যাকাউন্ট বাতিল করছে হোয়াটসঅ্যাপ

শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯

78213170_429230957767855_72797569658388480_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কাশ্মীরের বিশেষ মযার্দা বাতিলের চার মাস পার হয়েছে। এতদিন পরও কার্যত অবরুদ্ধ কাশ্মীর। এখনো ফেরেনি স্বাভাবিক অবস্থা। ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রয়েছে। এমন অবস্থায় দীর্ঘদিন নিষ্ক্রিয় থাকার কারণে কাশ্মীরীদের হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট বাতিল করা হচ্ছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

৫ আগস্টে ভারত সরকার কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার পর থেকে গত চার মাস ধরে সেখানকার মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছে না। এ কারণে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার না করতে পারায় হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ তাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিচ্ছে।

মেসেজিং সেবাদানকারী হোয়াটসঅ্যাপের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ফেসবুক বলেছে, ইন্টারনেট সংযোগ ফিরে পাওয়ার পর ব্যবহারকারীদের নতুন করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপগুলোতে যুক্ত হতে হবে।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী ভারতে। সেখানে এই অ্যাপটি ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪০ কোটি।

হোয়াটসঅ্যাপের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘বিশ্বের সবখানে ব্যবহারকারীদের নিরাপদ যোগাযোগের সুবিধা দিতে চায় হোয়াটসঅ্যাপ। কিন্তু নিরাপত্তার খাতিরে কোনো অ্যাকাউন্ট ১২০ দিন নিষ্ক্রিয় থাকলে সেগুলোর মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। এই ঘটনা যখন ঘটে, ওই অ্যাকাউন্টগুলো আপনা থেকেই সব গ্রুপ থেকে বের হয়ে যায়। ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়ার পর আবার নতুন করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যোগ দিতে হবে তাদের।’

আগস্টে ভারত শাসিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করার পর থেকে সেখানকার সাধারণ মানুষের জন্য ইন্টারনেট সুবিধা দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার।

কাশ্মীরে ইন্টারনেট বন্ধ করার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রাহমানইয়াম জয়শঙ্কর বলেছেন, সামাজিক মাধ্যম ও ইন্টারনেট ব্যবহার করে সেখানকার মানুষের মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী মনোভাব তৈরি করা হচ্ছে।


ঢাকা, শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ২১৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন