সর্বশেষ
রবিবার ৬ই মাঘ ১৪২৬ | ১৯ জানুয়ারি ২০২০

হ্যাটট্রিক জয়ে ফাইনালে শান্তরা

শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯

44.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

টানা তিন ম্যাচ জিতে সাউথ এশিয়ান গেমসে ফাইনালে উঠল বাংলাদেশ। তবে নেপালের মতো দলের বিপক্ষে শনিবার একটা বড় ঝাঁকিই খেয়েছে টাইগাররা। যাতে টপঅর্ডার ছিটকে গেলেও শেষপর্যন্ত রক্ষা করেন শান্ত-আফিফ। পরে বোলাররা কাজটা ঠিকঠাক করায় নেপালকে ৪৪ রানে হারায় অনূর্ধ্ব-২৩ দল।

হ্যাটট্রিক জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখে ফাইনাল নিশ্চিত করলেন সৌম্য-শান্ত-আফিফরা। এসএ গেমসে ছেলেদের ক্রিকেটে তাতে সোনার সম্ভাবনা জাগল। অন্তত সোনা বা রুপার মাঝে একটি পদক নিশ্চিতই!

বাংলাদেশের দেওয়া ১৫৬ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে তানভির-সুমন খানের দারুণ বোলিংয়ে মাত্র ১৪ রানেই ৩ উইকেট হারায় নেপাল। নিজের প্রথম ওভারেই বোলিংয়ে এসে পরপর দুই বলে দুই উইকেট নেন তানভির। এরপরের ওভারেই বোলিংয়ে এসে আরো একটি উইকেট নেন সুমন খান।

এরপর নেপালের জি মাল্লা ও ডিএস এইরি ৩২ রান যোগ করলেও তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি সৌম্য সরকার। এইরিকে ১৬ রানে ফিরিয়ে দেন তিনি। এরপর আর ঘুরে দাড়াতে পারেনি নেপাল। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১১১ রানে থামে তারা।

বাংলাদেশের হয়ে ২ টি করে উইকেট নেন তানভির, সুমন খান, সৌম্য সরকার ও মেহেদী হাসান।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে বিপাকে পরে বাংলাদেশ। আগের ম্যাচে সৌম্য ঝলক দেখা যায়নি এই ম্যাচে। ব্যাক্তিগত ৬ রান করে ফিরেন সৌম্য। তার আগে সৌম্যর সমান রান করে ফিরেন আরেক ওপেনার নাঈম শেখ।

আগের দুই ম্যাচে একাদশে সুযোগ না পাওয়া সাইফ হাসান এই ম্যাচে সুযোগ পেয়ে ব্যর্থ। শূন্য রানে ফিরেন তিনি। তবে ৩ উইকেট হারালো দলের হাল ধরেছেন শান্ত ও রাব্বি। কিন্তু ৪৩ রানের জুটি করে ব্যাক্তিগত ১৪ রান করে ফিরেন রাব্বি।

তবে ব্যাটিং বিপর্যয়ের সময় দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের কাপ্তান নাজমুল হোসেন শান্ত। ৪ ছক্কা ও ৪ চারে মাত্র ৬০ বলে ৭০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন তিনি এবং আরেক বাঁহাতি ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন তুলে নেন ঝড়ো অর্ধশতক। মাত্র ২৮ বলে ১ ছক্কা ও ৬ চারে ৫২ রান করেন। যার সুবাদে ২০ ওভার শেষে দলের সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়ায় ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান।


ঢাকা, শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২৪০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন