সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২২শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ০৬ আগস্ট ২০২০

অলিম্পিক ও কাতার বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ রাশিয়া

সোমবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৯

i.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রাশিয়া নতুন সমস্যায় পড়েছে। দেশটির অ্যাথলেটদের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে নামার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা ছিল। এবার ঘটনার মোড় ঘুরে গেল। দেশটিকে সমস্ত বৈশ্বিক ক্রীড়া ইভেন্ট থেকে চার বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা)।

এর অর্থ টোকিওতে ২০২০ অলিম্পিক এবং কাতারে ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপের মতো ইভেন্টেও রাশিয়ার পতাকা ও জাতীয় সংগীতের অনুমতি মিলছে না। তবে অ্যাথলেটদের মধ্যে যারা ডোপিং কেলেঙ্কারিতে নিজেদের না জড়ানোর বিষয় প্রমাণ করতে পারবেন, তারা নিরপেক্ষ পতাকার অধীনে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন।

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও রাশিয়া ২০২০ ইউরোতে প্রতিযোগিতা করতে পারবে। ওই আসরে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবুর্গ একটি আয়োজক শহর। ইউরোপীয় ফুটবলের পরিচালনা কমিটি উয়েফা অবশ্য এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি।

সোমবার সুইজারল্যান্ডের লুসানে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির এক সভায় ওয়াডার কার্যনির্বাহী কমিটি সর্বসম্মতভাবে নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে রাশিয়ার অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (রুসাডাকে) তাদের পরীক্ষাগারগুলোর তথ্য ওয়াডার তদন্তকারীদের হাতে হস্তান্তর করতে অস্বীকার করেছিল। তারপর এমন ঘোষণা এলো। সভায় ওয়াডার কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ডোপিং নিয়ে রাশিয়াকে যেসব পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছিল, তার কিছুই নেয়া হয়নি। ওয়াডার কর্মকর্তারা বেশ কয়েকবার মস্কো গিয়ে রাশিয়াকে বোঝাতে ব্যর্থ হয়।

রাশিয়ার অ্যান্টি ডোপিং সংস্থাকে যেভাবে কাজ করার কথা বলা হয়েছিল, তার কিছুই তারা করেনি। দু’বছর অতিবাহিত হলেও কোনো কাজই শেষ করতে পারেনি রুসাডা। তাই পুরো নিষেধাজ্ঞার পথেই হাঁটল ওয়াডা।

নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিলের জন্য ২১ দিন সময় পাবে রাশিয়া। ওয়াডা জানিয়েছে, রাশিয়া যদি আপিল করে তাহলে বিষয়টি ‘দ্য কোর্ট অফ আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস)’ পাঠানো হবে।

ওয়াডার প্রেসিডেন্ট স্যার ক্রেইগ রেডি মন্তব্যে, রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা ডোপিংয়ের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তবে সংস্থার ভাইস-প্রেসিডেন্ট লিন্ডা হেলল্যান্ড বলেছেন, রাশিয়ার জন্য এই শাস্তি পর্যাপ্ত হয়নি।

২০১৮ সালে নিষেধাজ্ঞার কারণে শীতকালীন অলিম্পিকে অংশ নিতে পারেনি রাশিয়ান অ্যাথলেটরা। ওই আসরে ১৬৮ জন রুশ অ্যাথলেট নিরপেক্ষ পতাকা তলে থেকে বিভিন্ন ইভেন্টে অংশ নেন। তার আগে ২০১৪ আসরেও নিষিদ্ধ ছিল রাশিয়ান অ্যাথলেটরা।

 


ঢাকা, সোমবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৬৮৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন