সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৯শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ১৩ আগস্ট ২০২০

শীতে গোসলে গরম নাকি ঠাণ্ডা পানি

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৪, ২০২০

83235924_496901690965678_5302037595339882496_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

শীতে গরম পানি নাকি ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করতে হয়। চিকিৎসকরা জানান, গরম হোক বা শীত, গোসল সব সময় ঠাণ্ডা পানি দিয়ে করা উচিৎ। চলুন জেনে নেই কেনো ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করতে হবে,

  • ঠাণ্ডা পানি আমাদের শরীরের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। এতে গোসলের পর আমাদের শরীর গরম থাকে এবং রক্তচাপ স্বাভাবিক থাকে।
  • এটি শ্বাস-প্রশ্বাস প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রাখে এবং শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণের অক্সিজেন গ্রহণে সহায়তা করে।
  • চুল ও ত্বকের জন্য ঠাণ্ডা পানির তুলনা হয় না। গরম পানি মাথায় দিলে খুশকি, র‍্যাশ এবং চুল পরার মতো সমস্যা দেখা দেয়। অন্যদিকে ঠাণ্ডা পানি ত্বকের লোমকূপ বন্ধ করে ময়লা প্রবেশ রোধ করে, চুল ঝলমলে রাখে এবং শরীরের প্রাকৃতিক তৈলাক্ত ভাব বজায় রাখে।
  • খেলা কিংবা ব্যায়ামের পর ক্রীড়াবিদরা ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করে। কারণ হলো ঠাণ্ডা পানি শরীরে মাংসপেশির ব্যথা ও ক্লান্তভাব দুটোই দূর করতে সাহায্য করে।
  • বিষণ্ণতা ও হতাশাভাব দূর করার জন্য ঠাণ্ডা পানির তুলনা হয় না। ঠাণ্ডা পানি মানসিক চাপ দূর করে, মন ভালো রাখে এবং নিশ্চিন্তে ঘুমাতে সাহায্য করে।
  • ঠাণ্ডা পানি রক্ত সঞ্চালনে পাশাপাশি রক্তের শ্বেতকণিকা কমিয়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং ধমনীতে রক্তপ্রবাহ ঠিক রাখে। এতে হার্ট ও শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ভালো থাকে।

তবে যদি কারো একেবারে ঠাণ্ডায় খুব বেশি সমস্যা হয় তাহলে কুসুম গরম পানি ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু কুসুম গরম পানিও মাথায় দেয়া মাথার ত্বক ও চুলের জন্য ক্ষতিকর।


ঢাকা, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৪, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৭৪২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন