সর্বশেষ
বুধবার ১৪ই ফাল্গুন ১৪২৬ | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কাঁদলেন ইলিয়াস কাঞ্চন

রবিবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২০

1533617388.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবির দুই প্রযোজক হলেন মতিউর রহমান পানু ও আব্বাস উল্লাহ শিকদার। শনিবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টায় মারা গেছেন তাদের একজন আব্বাস উল্লাহ। তার মৃত্যুতে চলচ্চিত্র অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শোকাহত ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবির নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনও। কান্না জড়িত কণ্ঠে এ অভিনেতা বললেন, ‘একজন সৎ, উদার মানুষ ছিলেন আব্বাস উল্লাহ ভাই। পয়সাওয়ালা ছিলেন, কিন্তু কোনো অহংকার ছিল না। মানুষকে সম্মান করতেন তিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‌‌‘আব্বাস উল্লাহ ভাই মেধার মূল্যায়ন করতেন। একজন সুপারস্টারকে যে স্পেসটা দিতেন রাইজিং স্টারকেও সেভাবে সম্মান দিতেন। তাকে দেখেছি বন্ধুর মতো, তাকে পাশে পেয়েছি ভাইয়ের মতো। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে আমি খুবই মর্মাহত হয়েছি। অনেকদিন অসুস্থ ছিলেন। আল্লাহ যেন তাকে জান্নাত দান করেন। তার পরিবারের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা রইলো।’

নিজের ক্যারিয়ারে আব্বাস উল্লাহর অবদান স্বীকার করে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘আব্বাস উল্লাহ ভাই ভালো সিনেমা বানানোর চেষ্টা করতেন। দর্শকের চাহিদা বুঝতেন। তিনি ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ নির্মাণ করে ইতিহাস করেছেন। আমি ইলিয়াস কাঞ্চনকেও ইতিহাসের নায়ক বানিয়েছেন। ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ একটা ইতিহাস।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) আব্বাস উল্লাহর মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। বনানীর বিখ্যাত চেয়ারম্যান বাড়ির চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদের পুত্র আব্বাস উল্লাহ শিকদার। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক পুত্র ও এক কন্যাসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

জানা গেছে, রোববার (১৯ জানুয়ারি) বাদ আসর বনানীর চেয়ারম্যান বাড়ির মাঠে আব্বাস উল্লাহর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। তাকে বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হবে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।


ঢাকা, রবিবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ৪৬৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন