সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৫শে আষাঢ় ১৪২৭ | ০৯ জুলাই ২০২০

বিপাকে মালয়েশিয়া

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৩, ২০২০

mo.png
বিডিলাইভ ডেস্ক :

মালয়েশিয়া বিশ্বে যত লক্ষ টন পাম তেল বিক্রি করে তার এক- তৃতীয়াংশ ক্রয় করতো ভারত। কিন্তু ভারতের সংশোধনী আইনের বিরোধীতা করায় মালয়েশিয়া থেকে তেল আমদানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।

সম্প্রতি মালয়েশিয়া জানায়, ভারতের পাম তেল আমদানি বন্ধ করার প্রতিশোধ নেয়ার সামর্থ্য তাদের নেই। কারণ, ভারতের বিরুদ্ধে পাল্টা ব‌্যবস্থা নিতে তারা অক্ষম। বাণিজ্যিক লড়াইয়ে মালয়েশিয়া ভারতের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারবে না বলেই জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।  

ওই কথার সূত্র ধরেই আন্তর্জাতিক কৌশলগত বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, আর্থিক ও বাণিজ্যিক বাধ‌্যবাধকতা আছে বলেই মালয়েশিয়া ভারতের বিরুদ্ধে ব‌্যবস্থা নিতে পারবে না। মালয়েশিয়ার পাম তেল রপ্তানির হার কমছে। বেড়ে গিয়েছে পাম তেল পরিশোধন ও উৎপাদনের খরচ।

বিশ্বের বৃহত্তম পাম তেল উৎপাদক দেশ হলো ইন্দোনেশিয়া। মালয়েশিয়ার এই প্রতিবেশী দেশটি উন্নততর প্রযুক্তি ব‌্যবহার করে মালয়েশিয়ার তুলনায় তিন গুণ পাম তেল উৎপাদন করে এবং রপ্তানিও করে। তারা অনেক সহিষ্ণু। ইন্দোনেশিয়ার সরকার ও মুসলিম নাগরিকরা সেখানকার হাজার বছরের ঐতিহ‌্য হিন্দু ও বৌদ্ধ সংস্কৃতিকে সযত্নে বাঁচিয়ে রেখেছেন। মালয়েশিয়ার কিন্তু সেই সুনাম ইদানীং নেই। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ মৌলবাদী মানসিকতার ও সংখ‌্যালঘুদের প্রতি অসহিষ্ণু বলে ভাবমূর্তি তৈরি হয়েছে। এর খারাপ প্রভাব পড়েছে বাণিজ্যে এবং আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে।

ফলে মালয়েশিয়ার সঙ্গে দূরত্ব বাড়িয়েছে ভারতসহ অনেক দেশ। ওই দেশগুলি ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সখ‌্য বাড়িয়েছে। তার প্রমাণ 'পাম তেল' নিয়ে রাজনীতি।

উল্লেখ্য, ভারতের সংশোধনী আইনের বিরোধীতা করে কড়া মন্তব্য করেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। এর জবাবে সেই দেশ থেকে তেল আমদানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৩, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ১২৬১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন